২৭ নভেম্বর, ২০২১ ০৪:৩৩ পিএম

২৭ দিন পর প্রাণ ফিরেছে চমেকে

২৭ দিন পর প্রাণ ফিরেছে চমেকে
শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ক্যাম্পাস।

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জেরে ২৭ দিন বন্ধ থাকার পর খুলেছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক)। আবারও শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে কলেজ ক্যাম্পাস। শিক্ষার্থীরা নিরাপদে যাতে শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নিতে পারে সেই জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকাল থেকে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ক্যাম্পাস। চলছে অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম, ও ক্লাস-পরীক্ষা। ক্যাম্পাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান অধ্যক্ষ। তবে হোস্টেল খুলে না দেওয়ায় ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গত ২৯ অক্টোবর রাতে ও ৩০ অক্টোবর সকালে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আকিব নামে মেডিকেল কলেজের এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হন। এরই জেরে মেডিকেল কলেজ ও ছাত্রাবাস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।

এদিকে শিক্ষার্থীরা যাতে নিরাপদে শিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নিতে পারেন ও যাতে কোনো ধরনের সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি না হয় সেই জন্য সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান কলেজ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন কলেজ বন্ধ থাকার পর আজ থেকে ক্লাস শুরু হয়েছে। ক্যাম্পাস খোলায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। যেহেতু কিছু শিক্ষার্থীকে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে, মনে হচ্ছে এই বিষয়টি দেখে অন্যরা সতর্ক হবে। আবার কেউ সংঘর্ষে লিপ্ত হলে আরও বড় ধরনের শাস্তি পেতে হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে সভা-সমাবেশ, মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ছেলেদের ছাত্রাবাসে নতুন করে সিট বরাদ্দ দেওয়া হবে। ছাত্রদের থেকে আবেদন নেওয়া হবে। যারা আবেদন করবে তাদের থেকে যাচাই-বাছাই করে হলে সিট বরাদ্দ দেওয়া হবে। এরপর ছেলেদের ছাত্রাবাস খুলে দেওয়া হবে।  

গত ২৩ নভেম্বের চমেক একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় বিভিন্ন মেয়াদে ৩০ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি