২১ নভেম্বর, ২০১৬ ১০:০১ এএম

হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি

হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৯ দিনের শিশুপুত্র চুরি হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। চিকিৎসা সহায়তার টাকা দেওয়ার কথা বলে ওই শিশুটি নিয়ে পালিয়ে গেছে এক নারী।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জেনারেল হাসপাতালের কর্মচারী নুরু মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

 

শিশুটির মা তহমিনা বলেন, ‘৮ দিন আগে বাড়িতে শিশুসন্তানের জন্ম হয়। পরে সমস্যা দেখা দিলে পরিবারের লোকজন আমাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সেখান থেকে শনিবার আমাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে। কেশবপুর থেকে অটোরিকশায় যশোর আসার সময় অপরিচিত এক নারী সহায়তার কথা বলেন।

রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই নারী ওয়ার্ডে এসে আমাকে বলেন, নিচে মাইক্রোবাসে স্যার বসে আছেন। আপনাদের টাকা দিবেন এ জন্য ছবি তুলতে হবে।

তখন আমার মা ফিরোজা বেগম শিশুকে নিয়ে ওই নারীর সঙ্গে যান। পরে শিশুসহ আমার মাকে শহরের কুইন্স হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে আমার মাকে বসতে বলে ওই নারী শিশুটিকে নিয়ে পালিয়ে গেছে।’

 

এ ব্যাপারে কুইন্স হাসপাতালের ম্যানেজার মিঠু সাহা বলেন, হাসপাতালের ভিডিও ফুটেজ পুলিশকে দেওয়া হয়েছে।

কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ ইলিয়াস হোসেন বলেন,  শিশুটির বাবা কেশবপুর উপজেলার বরণডালি গ্রামের রেজাউল ইসলামের অভিযোগের ভিত্তিতে কুইন্স হাসপাতাল থেকে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি