০৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৩:৫৫ পিএম

গণটিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় ডোজ শুরু ৭ সেপ্টেম্বর

গণটিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় ডোজ শুরু ৭ সেপ্টেম্বর
ছবি: মজিবুর রহমান

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গণটিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় ডোজ আগামী মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

আজ রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘গত ৭ থেকে ১২ আগস্ট যে ক্যাম্পেইন হয়েছিল, সেই ক্যাম্পেইনের দ্বিতীয় ডোজের টিকাদান কর্মসূচি আগামী ৭ সেপ্টেম্বর শুরু হবে। একইভাবে, একই কেন্দ্রে দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া হবে। যারা ক্যাম্পেইনের সময় যে কেন্দ্র থেকে টিকা নিয়েছেন, সেই কেন্দ্রে এসে দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণ করবেন।’

এ সময় করোনা সংক্রমণ হার কমায় স্বস্তি প্রকাশ করে বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি অনেকখানি কমেছে। গতকাল ১০ শতাংশের নিচে এসে দাঁড়িয়েছে, সেটি আমাদের জন্য স্বস্তির সংবাদ। যেভাবে সংক্রমণের রাশ টেনে ধরা হয়েছে, সেটি যদি অব্যাহত থাকে তাহলে আশা করতে পারি সেপ্টেম্বরে রোগীর সংখ্যা কমে আসবে। যদিও সংক্রমণের হার কমে এসেছে তবে এখানে আমাদের আত্মতুষ্টির কোনও অবকাশ নেই।’

এর আগে গত ২৫ আগস্ট কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে (সিএমএসডি) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম জানান, গণটিকা কার্যক্রমের দ্বিতীয় ডোজ শুরু হবে ৭ সেপ্টেম্বর। এর মধ্যেই সরকারের কাছে পর্যাপ্ত টিকা আসবে। গণটিকা চলাকালে যে যেই কেন্দ্র থেকে টিকা নিয়েছেন, সেখানেই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, দেশের প্রান্তিক জনগণকে টিকার আওতায় আনতে গত ৭ আগস্ট সকাল নয়টা থেকে সরকার ঘোষিত করোনার গণটিকাদান কার্যক্রমের ক্যাম্পেইন শুরু হয়। এই কর্মসূচির আওতায় ২৫ বছর ও তদূর্ধ্ব জনগোষ্ঠী, নারী, শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষকে প্রাধান্য দিয়ে টিকা দেওয়া হয়। এ কর্মসূচির আওতায় প্রায় ৫৮ লাখ মানুষতে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : টিকাদান কর্মসূচি
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি