১৭ ডিসেম্বর, ২০২০ ০২:২৩ পিএম

যেসব করোনা রোগীদের বাসায় চিকিৎসা নেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ

যেসব করোনা রোগীদের বাসায় চিকিৎসা নেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ
ছবি:: সংগৃহীত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দেশে করোনার রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। আক্রান্তদের কেউ কেউ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলেও অনেকেই বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা চালিয়ে যান। তবে ডায়াবেটিস ও অ্যাজমাসহ বেশ কিছু জটিল রোগে আক্রান্তদের করোনার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যাওয়া জরুরি বলে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।  

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, করোনায় আক্রান্তদের বেশির ভাগই মারা গেছেন হাসপাতালে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৭ জনই হাসপাতালে মারা গেছে। এর আগের দিন প্রাণ হারিয়েছেন ৪০ জন, ১৪ ডিসেম্বর ৩৭ জন, ১৩ ডিসেম্বর ৩২ জন, ১২ ডিসেম্বর ৩৪ জন এবং ১১ ডিসেম্বর মারা গেছেন ২৪ জন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, করোনার মৃদু লক্ষণ নিয়ে কেউ হাসপাতালে ভর্তি হয় না। কোভিড-১৯ রোগীরা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন তারা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ৬৫ শতাংশের বেশি রোগী বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে জটিল ও একসঙ্গে অনেক রোগে আক্রান্তরা চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে আসেন।

করোনা রোগীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে ইতিপূর্বে কয়েক ধরনের রোগে আক্রান্তদের হাসপাতালে চিকিৎসার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এ সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা বলেছে, যারা জ্বর, শ্বাসকষ্ট, ফুসফুস সমস্যা, দীর্ঘমেয়াদী রোগে আক্রান্ত তারাসহ বয়োজ্যেষ্ঠদের করোনা পজিটিভ হলে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।

পাবলিক হেলথ অ্যাডভাইজারি কমিটির সদস্য ডা. আবু জামিল ফয়সাল গণমাধ্যমকে বলেন, কারও তিন/চার দিনের বেশি জ্বর ও শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা হলে, একই সঙ্গে যদি তার জটিল রোগ যেমন ডায়াবেটিস, অ্যাজমা, হার্টের সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ থাকে তাহলে তাদের বাড়িতে থাকা উচিত না। শুরুতে হাসপাতালে আসলে তাদের কারও জীবন রক্ষা করা সম্ভব।
 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি