২৫ নভেম্বর, ২০২০ ০৫:০১ পিএম

‘চিকিৎসককে মারপিট করা সেই আসামি গ্রেপ্তার’

‘চিকিৎসককে মারপিট করা সেই আসামি গ্রেপ্তার’
আহত ডা. শেখ সাজ্জাদ হোসেন। ফাইল ছবি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: গোপালগঞ্জের গোপীনাথপুর ১০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতালে এক রোগীকে সিরিয়ালে দাঁড়াতে বলায় মেডিকেল অফিসার ডা. শেখ সাজ্জাদ হোসেনকে পিটিয়ে আহত করা সেই আসামি নাজিম খন্দকারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম মেডিভয়েসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক ছিল। তবে অভিযান অব্যাহত ছিল। আমরা তাকে ধরার জন্য সব সময় তৎপর ছিলাম। অবশেষে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি।’

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) ভোরে গোপালগঞ্জ সদরের গোপীনাথপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি মনিরুল ইসলাম। আসামি নাজিম খন্দকার বর্তমানে জেলখানায় রয়েছেন।

এদিকে তাকে গ্রেপ্তার করায় গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘ঘটনার এক সপ্তাহ পার হলেও আসামি গ্রেপ্তার না হওয়ায় আমরা ক্ষোভ জানিয়েছিলাম। পাশাপাশি বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশেনের (বিএমএ) ডাকে আমরা কর্মবিরতির কর্মসূচিও পালন করছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘সংগঠনের পক্ষ থেকে গত সোমবার ও মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টার কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। প্রথমদিন কর্মবিরতি পালনের পর দ্বিতীয় দিন কর্মসূচি চলা অবস্থায় আমরা জানতে পারি যে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফলে তখনই প্রতিবাদ কর্মসূচি উঠিয়ে নেয়া হয়।’

প্রসঙ্গত, গত ১৭ নভেম্বর গোপালগঞ্জের গোপীনাথপুর ১০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. শেখ সাজ্জাদ হোসেনকে পিটিয়ে আহত করে চিকিৎসা নিতে আসা ২২ বছর বয়সি নাজিম খন্দকার। তিনি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপিনাথপুর বাসাবাড়ি এলাকার ফটিক খন্দকারের ছেলে।

  ঘটনা প্রবাহ : চিকিৎসকের উপর হামলা
একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার

অধ্যাপক প্রাণ গোপালকে বিজয়ী ঘোষণা করে রোববার বিজ্ঞপ্তি: রিটার্নিং কর্মকর্তা

একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার

অধ্যাপক প্রাণ গোপালকে বিজয়ী ঘোষণা করে রোববার বিজ্ঞপ্তি: রিটার্নিং কর্মকর্তা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে