২৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:২৭ এএম

শিক্ষা ও গবেষণায় আরো ১০ কোটি টাকা চাই : বিএসএমএমইউ ভিসি

শিক্ষা ও গবেষণায় আরো ১০ কোটি টাকা চাই : বিএসএমএমইউ ভিসি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা এবং গবেষণা খাতে আরও ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর উপস্থিতে সরকারের কাছে এ দাবি জানান তিনি। 

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলন হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় বিএসএমএমইউর  ভিসি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন মেডিক্যাল উচ্চশিক্ষা, গবেষণা ও মেডিক্যাল চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছে এ বিশ্ববিদ্যালয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আগের তুলনায় এখন অনেক বেশি প্রাণবন্ত। বিকেলে, সন্ধ্যায় এমনকি রাতেও সিনিয়র অধ্যাপকবৃন্দ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ নিয়মিত রাউন্ড দিচ্ছেন। সন্ধ্যায় অনেক শিক্ষক ক্লাস নিচ্ছেন। চিকিৎসকবৃন্দ তার কর্তব্যরত ওয়ার্ডে, বহির্বিভাগে যথাসময়ে উপস্থিত থেকে দায়িত্ব পালন করছেন। নার্সরা নিজ হাতে রোগীদের ওষুধ খাওয়াচ্ছেন। সব মিলিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে।

উপাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় দেশের সকল মানুষের বিশ্ববিদ্যালয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশের মানুষের আকাক্সক্ষা পূরণে চিকিৎসাসেবা, চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণায় অবশ্যই আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা হবে। উপাচার্য আরও বলেন, রোগীদের সেবার পরিধি বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে হাসপাতালের শয্যা ও কেবিন সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। আইসিউসংবলিত অত্যাধুনিক সিসিইউ, এনআইসিউ চালু করা হয়েছে। একটি আধুনিক আইসিউ কমপ্লেক্স ও অপারেশন থিয়েটার কমপ্লেক্স নির্মাণের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

বর্তমান সরকারের আমলে গ্র্যাজুয়েট নার্সিং বিভাগ, রিউমাটোলজি মেডিসিন বিভাগ, এ্যান্ডোক্রাইনোলজি মেডিসিন বিভাগ, সেন্টার ফর প্যালিয়াটিভ কেয়ার, সেন্টার ফর নিউরোডেভেলপমেন্ট অটিজম ইন চিলড্রেন চালু করা হয়েছ। জরায়ু ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা, নবজাতকদের চিকিৎসাসেবা, তোতলামি ও বধিরদের চিকিৎসাসেবায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় চিকিৎসাসেবার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রকল্পও চালু রয়েছে বলে উল্লেখ করেন বিএসএমএমইউ ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান।  

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত