১৯ অগাস্ট, ২০২০ ০৭:১৮ পিএম

বাসের সব আসনে যাত্রী বহনের সিদ্ধান্ত, ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর

বাসের সব আসনে যাত্রী বহনের সিদ্ধান্ত, ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর

মেডিভয়েস রিপোর্ট: স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণ এবং অর্ধেক আসন খালি রাখাসহ বেশ কিছু শর্তে বর্ধিত ভাড়ায় গণপরিবহন চালু করেছিল সরকার। এবার বাসের সব আসনে যাত্রী বহনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অতিরিক্ত ৬০ ভাগ ভাড়াও বাতিল করা হবে।

আজ বুধবার (১৯ আগস্ট) বিকালে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এতে জানানো হয়, শিগগিরই এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাসের দুই সিটের জায়গায় একজন করে বসবেন এবং এ সময়ে বর্ধিত ভাড়া বলবৎ থাকবে। এক সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়ায় বাসে যাতায়াত করা যাবে। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব তৈরি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠাবে বিআরটিএ। ভাড়া কমানোর প্রস্তাবের সঙ্গে দুই সিটে দুজন যাত্রী বসা, প্রত্যেকের মাস্ক পরা, গাদাগাদি করে যাত্রী না তোলাসহ কয়েকটি নির্দেশনা থাকবে।

বিআরটিএর চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে বৈঠকে মালিক ও শ্রমিক প্রতিনিধি, ডিএমপি, হাইয়ে পুলিশের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র জানায়, বৈঠকে ঢাকা শহরে ব্যাটারিচালিত রিকশা আর হাইওয়েতে নসিমন পরিবহন ভটভটির বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধে ডিএমপিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এর আগে করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বাস ও মিনিবাসে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী বহন করার শর্তে গত ১ জুন থেকে বাসের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়েছে সরকার। এ নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস মহামারীতে দেশে সংক্রমণ এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। তবে অর্থনীতির চাকা সচল রাখার স্বার্থে সরকারি সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এরই মধ্যে খোলা দেওয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগের চেনা চেহারায় ফিরছে গণপরিবহন খাত। 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : গণপরিবহন
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি