১৮ এপ্রিল, ২০২০ ০৭:৩৬ পিএম

চিকিৎসকরাই এখন সবচেয়ে বড় যুদ্ধটা করছেন: হাবিবুল বাশার সুমন

চিকিৎসকরাই এখন সবচেয়ে বড় যুদ্ধটা করছেন: হাবিবুল বাশার সুমন
হাবিবুল বাশার সুমান। ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বব্যাপী প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছেন। বিশ্বে ইতিমধ্যে দেড় লক্ষাধিক মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ছোঁয়াছে এই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে মেডিভয়েসের মুখোমুখী হয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন আব্দুল্লাহ আল-মামুন  

মেডিভয়েস: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে বারবার বলা হচ্ছে যথা সম্ভব ঘরে থাকা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে। এ ব্যাপারে দেশবাসীর উদ্দেশে আপনি কিছু বলুন।

হাবিবুল বাশার সুমন: এই বিষয়ে নতুন করে তো আর কিছু বরার নেই। করোনাভাইরাস নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যা বলছে, সবার কাছে তা পরিষ্কার। সবাই বুঝতে পারছেন রোগটার ভয়াবহতা কতখানি। এই সংক্রমণ এড়াতে আমাদের কী করণীয় তাও সবাই জানতে পারছেন, বুঝতে পারছেন। যতদিন না এই ভাইরাসের প্রতিষেধক বা ভ্যাকসিন বের না হচ্ছে তার আগে এর একমাত্র প্রতিরোধক হলো সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। ঘরে থাকা, বারবার হাত ধোয়া। এগুলো বারবার বলা হচ্ছে। আমরা যদি এসব মেনে চলতে পারি কিছুদিন ধৈর্য ধরতে পারি তাহলে হয়তো এই রোগ থেকে মুক্তি পাব।  

মেডিভয়েস: করোনাভাইরাস মোকাবেলায় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিনিয়ত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। এই সংকটে   স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কিছু বলুন।

হাবিবুল বাশার সুমন: এই সময়তো সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টর হলেন তারা। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরাই এখন সবচেয়ে বড় যুদ্ধটা করছেন। তাদের প্রতি আমাদের ভালোবাসা সব সময় আছে, থাকবে। আল্লাহর কাছে দোয়া করি তারা যেন সুস্থ থাকেন। তাদের সুস্থ থাকাটা খুবই জরুরি। কারণ তারা সুস্থ না থাকলে করোনায় আক্রান্ত যারা রয়েছেন তারা ঠিকমতো চিকিৎসাও পাবেন না।

মেডিভয়েস: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে আপনি নিজে ব্যক্তিগতভাবে কী করছেন, আপনাকে যারা ফলো করেন বা দেশবাসীর উদ্দেশে কী পরামর্শ দেবেন?

হাবিবুল বাশার সুমন: সবার উদ্দেশে একটাই কথা। ঘরে থাকুন। আমি নিজে ঘরে থাকছি। বারবার হাত ধোচ্ছি। পরিবারকে সময় দিচ্ছি। ঘরের কাজ করছি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও সরকারের থেকে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে তা মেনে চলছি । যতদিন না এই সমস্যার সমাধান না হচ্ছে সবাই বাসায় থাকুন। প্রয়োজন ছাড়া বের হবে না। এই সংকট মুহূর্তে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করুণ।   

মেডিভয়েস: বিশেষজ্ঞরা বলছেন করোনাভাইরাসের প্রভাব কেটে গেলেও এর প্রভাব থেকে যাবে। বিশ্ব বড় ধরনের আর্থিক মন্দায় পড়বে। এ ব্যাপারে আপনি কী বলবেন?

হাবিবুল বাশার সুমন:  আমার মনে হয় এখন ভবিষ্যত নিয়ে না চিন্তা করাই ভালো। কারণ ফিউচারে কী হবে, সে সম্পর্কে আমাদের কারোই ধারণা নেই। আমরা কেউই কিছু জানি না। ফিউচারে সবারই সমস্যা হতে পারে, আবার নাও হতে পারে। এই মুহূর্তে ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা না করে করোনার যে সমস্যায় আমরা এখন আছি চেষ্টা করি এই সমস্যা দ্রুত কাটিয়ে ওঠার। ভবিষ্যতে সমস্যা হলে সবাই মিলে একসঙ্গে মোকাবেলার চেষ্টা করব।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস নিয়ে তারকা ভাবনা
সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা উপেক্ষা

অতিরিক্ত বেতন নিচ্ছে একাধিক বেসরকারি মেডিকেল

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
আন্তর্জাতিক এওয়ার্ড পেলেন রাজশাহী মেডিকেলের নার্স
জীবাণু সংক্রমণ প্রতিরোধে অসামান্য অর্জন

আন্তর্জাতিক এওয়ার্ড পেলেন রাজশাহী মেডিকেলের নার্স