ডা. কাওসার উদ্দিন

ডা. কাওসার উদ্দিন

সহকারী সার্জন

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।


১৫ এপ্রিল, ২০২০ ১১:১৫ এএম
​​​​​​​ডা. মঈন উদ্দিন

সদা হাস্যোজ্জ্বল একজন ভাল মানুষের বিদায়

সদা হাস্যোজ্জ্বল একজন ভাল মানুষের বিদায়

ডা. মঈন উদ্দিন স্যারের মুখটা এখনো চোখে ভাসে। ছোট দুটি শিশু সন্তান, বড়টার বয়স ছয় কি সাত হবে। আমাকে বেশ উৎসাহ দিতেন, স্নেহ করতেন, লেখাগুলো পড়তেন। কখনো মনে হয়নি এই মানুষটাকে এত সহজে হারাবো। সদা হাস্যোজ্জ্বল, ভাল একজন মানুষ।

কিছু মৃত্যু মেনে নেয়া খুব কঠিন, খুব কঠিন। গতকাল থেকে মনটা একটু খারাপ। করোনা ভীতি আমার একদমই ছিল না, পাশের এক ডাক্তার দম্পতি যারা পজিটিভ, সিম্পটম না থাকা সত্ত্বেও - হোম আইসোলেশনে থাকার পরও, এলাকাবাসী বাড়িওয়ালা তাদের জোড় করে ইনফেকশাস ডিজিজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছে, যেখানে আইসোলেশন ওয়ার্ডের বর্ণনা আর নাই বা দিলাম। এগুলো দেখে মনে হল, আমি পজিটিভ হলে আমাকেও কি ওখানে রাখা হবে, সেই প্রথম পজিটিভ রোগীটা যে জেলখানার মত গ্রিলের গরাদ ধরে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে, আমিও কি ঠিক ওইভাবে তাকিয়ে থাকবো।

নতুন জায়গা, আত্মীয় স্বজন কেউ নেই,পজিটিভ হলে কাউকে জানাবোও না, আমি কি তখন অনেক বেশি হতাশায় থাকবো! এগুলো নিয়ে ভাবছিলাম কিছুদিন।

আমার দৃঢ় সাহসগুলো আস্তে আস্তে এখন উঠে যাচ্ছে, করোনার ভয়ে না, ভয় আমাদের সিস্টেমের ভগ্নদশা দেখে, আমাদের স্বার্থপর সমাজ দেখে।

গতকাল রাত দশটায় হাসপাতাল গেটে দেখলাম শুনশান নিরবতা। রাস্তার অপর পাশে এক পুলিশ এক লোকের পশ্চাৎদেশ বরাবর জোড়ছে এক লাথি দিয়ে কিছু একটা বলছে, লোকটা খুব দ্রুত সামনে হেঁটে যাচ্ছে। জানি না, লোকটা কি করেছে! রাস্তায় তেমন কেউ নাই, সে নিশ্চয় কোন প্রয়োজনে বের হয়েছে, আমিও তো তাই, তাহলে তো এই সিস্টেম আমাকেও একটা লাথি মারলো! সমাজ ও সিস্টেমের নগ্নদশা দেখে আমি ভীত।

মঈন স্যারের স্যাচুরেশন খুব ভাল ছিল, স্যারের বয়সও বা কত হবে, যদিও গত দুই দিন স্যারের স্যাচুরেশন কম ছিল, কিন্তু বাকি রিপোর্ট ভাল ছিল। স্যাররা ভাইয়ারা সবাই তাদের সাধ্যমত চেষ্টা করছিলেন। আশা এত বেশি ছিল যে, মৃত্যুটা সহজে মানতে পারছি না, একদমই পারছি না। খুব সাহস ছিল, সবাইকে সাহস দিয়েছি, দৌড়ে বেড়িয়েছি, আজ খুব ডিপ্রেশনে পড়ে গেলাম, কষ্টে পড়ে গেলাম।

স্যারের জন্য দোয়া করবেন, তার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন, একে অপরের জন্য দোয়া করবেন। আমর যারা কাজ করছি তারা যেন হতাশ না হই - সাহস না হারাই, সেই দোয়া করবেন। স্রষ্টাকে ডাকবেন বেশি বেশি করে, তিনি যেন আমাদের সাহায্য করেন, তিনিই উত্তম পরিকল্পনাকারী।

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলো মেনে চলুন। সর্দি কাশি জ্বর হলে হাসপাতালে না গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দানকারী হটলাইন গুলোতে ফোন করুন। আইইডিসিআর হটলাইন- 10655, email: [email protected]
  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না