১৫ এপ্রিল, ২০২০ ১০:০৩ এএম

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথম চিকিৎসকের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথম চিকিৎসকের মৃত্যু

মেডিভয়েস রিপোর্ট: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ডা. মঈন উদ্দিন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্নি ইলাইহি রাজিউন।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ডা. মঈন সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিসিন বিভাগের কনসালটেন্ট ছিলেন দীর্ঘদিন। এর আগে ২০১৭ সালে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে দক্ষিণ সুরমা থেকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজে যোগদান করেন।

জানা গেছে, করোনার প্রাদুর্ভাবের পরও তিনি হাসপাতাল এবং চেম্বারে চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। আক্রান্ত হওয়ার পরে প্রথমে সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমেদ হাসপাতালে এবং তারপর ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সর্বশেষে শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় আজ সকালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

এর আগে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৭ মার্চ রাতে সিলেটের নিজ বাসা থেকে ওই চিকিৎসককে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে নেয়া হয়। প্রথমে হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হলেও পরে সাড়ে ১১টার দিকে কেবিনে নিয়ে আসা হয়। অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে তার শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখা হয়।

গত রোববার (৫ এপ্রিল) সিলেটে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তি হিসেবে এই চিকিৎসককে সনাক্ত করা হয়। সেদিন রাতে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এর বরাত দিয়ে  এ তথ্য নিশ্চিত করেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডল।

সিভিল সার্জন সূত্রে জানা যায়, সন্দেহভাজন করোনা রোগীকে চিকিৎসা প্রদান করতে গিয়েই ওই চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়। সিলেটে অনেক লন্ডন প্রবাসী আসায় সিলেট এ ভাইরাস সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের তার সহকর্মী ডা. সাঈদ এনাম লিখেন, আমি গত ডিসেম্বরে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি নিয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেলে যোগদান করলে সেখানে নিয়মিত ডা. মঈন ভাইয়ের সঙ্গে দেখা হতো। মানুষ হিসেবে মানুষের মধ্যে অনেক দূর্বলতা থাকে কিন্তু ডা. মঈন ভাইকে আমরা এমন একজন মানুষ হিসেবে দেখেছি জেনেছি যিনি আসলেই আপাদমস্তক একজন ভালো মানুষ এবং একজন ভালো মেডিসিন ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ। আর ভালো মানুষ বলেই তিনি করোনা-ক্রান্তিকালে রোগীদের অসহায়ত্বের কথা ভেবে তার চেম্বার খোলা রেখেছিলেন। কিন্ত দুঃখজনক ভাবে তিনি করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে যান।

করোনা যোদ্ধা ডা. মঈন স্যারকে নিয়ে আমরা অত্যন্ত গর্বিত। আল্লাহ তাকে শহীদ হিসাবে কবুল করুন। তাকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মর্যাদা দান করুন।

উল্লেখ্য, ১২এপ্রিল (রবিবার) এক চিকিৎসক করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যায়। পরে পরীক্ষা করলে রিপোর্টে করোনা সনাক্ত হয়নি । ফলে ডা. মঈন করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করা দেশের প্রথম চিকিৎসক। 

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি