৩১ মার্চ, ২০২০ ০৭:১২ পিএম

পিপিই পরেই রিকশা চালায় রুপচান মিয়া

পিপিই পরেই রিকশা চালায় রুপচান মিয়া

মেডিভয়েস ডেস্ক:  ‘ঘরে খাবার নাই। তাই পরিবারের ভরণ-পোষণের তাগিদে পিপিই, মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাভস ও হ্যালমেট পরে গত কয়েকদিন ধরে রিকশা চালাচ্ছি। কিছু টাকা উপার্জনের চেষ্টা করছি’ বলে জানায় শেরপুরের রুপচান মিয়া। 

তিনি নকলা পৌরসভার মমিনাকান্দা গ্রামের শমসের আলী ছেলে।

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই শেরপুরের নকলার বিভিন্ন গ্রামে রিকশা, ভ্যান, সিএনজিচালিত অটো রিকশা চলছে অবাধে।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার চন্দ্রকোনা গেলে চোখে পড়ে এক ভিন্ন চিত্র। পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট সংক্ষেপে যা পিপিই, মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাভস ও হ্যালমেট পরে রিকশা চালাচ্ছেন একজন চালক।

একজন রিকশাচালক হয়ে কোথা থেকে এসব সামগ্রী পেলেন? এর উত্তরে রুপচান বলেন, ঢাকার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতাম। সেখান থেকে এ সরঞ্জামগুলো সংগ্রহ করেছি।
 

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি