০১ অক্টোবর, ২০১৬ ০৪:৩৩ পিএম

বর্জ্য পরিশোধনে ঢাকায় ছয়টি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট

বর্জ্য পরিশোধনে ঢাকায় ছয়টি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট

দেশের সার্বিক স্যানিটেশন-ব্যবস্থা উন্নত করতে রাজধানীসহ সারাদেশের শহর এলাকায় ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। এরমধ্যে রাজধানীতেই বর্জ্য পরিশোধনে ৬টি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে রাজধানীসহ বড় শহরগুলোর স্যানিটেশন বর্জ্য পরিশোধন করে তা নদীতে ফেলা হবে।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ভবনের সম্মেলনকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

জাতীয় স্যানিটেশন মাস উপলক্ষে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী মো. ওয়লী উল্লাহ এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বর্জ্য পরিশোধনে ঢাকায় ছয়টি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

এরমধ্যে রাজধানীর সায়েদাবাদে একটি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টের কাজ ইতোমধ্যেই শুরু করা হয়েছে।

এছাড়াও আরো একটি ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট করার কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বাকি চারটির জন্য অর্থায়ন সহযোগিতার খোজ করা হচ্ছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের যুগ্মসচিব মো. মাহাবুব হোসেন, উপসচিব মো. খাইরুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (পূর্ত) শহীদ ইকবাল, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (পানি সম্পদ) মো. দেলোওয়ার হোসেন এবং ইউনিসেফের প্রতিনিধি মো. জাকারিয়া এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

এ সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রাজধানীর স্যুয়ারেজ লাইন থেকে স্যানিটেশন বর্জ্য একটি লাইনে নিয়ে ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টে নেওয়া হবে এবং তা পরিশোধন করে রাজধানীর নদীগুলোতে ফেলা হবে।

লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, বর্তমানে বাংলাদেশে এক শতাংশ মানুষ উন্মুক্ত স্থানে মলত্যাগ করে। শতকরা ৬১ শতাংশ মানুষের উন্নত স্যানিটেশন ব্যবস্থা রয়েছে, যৌথ ল্যাট্রিন ব্যাবহার করে ২৮ শতাংশ মানুষ। এর মধ্যে ১০ শতাংশ মানুষ অনুন্নত ল্যাট্রিন ব্যবহার করে।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত