২২ মার্চ, ২০২০ ০২:৫৬ পিএম

করোনা সমাধানে আইডিয়াদাতাকে পুরস্কৃত করবে ‘এক্সিস’

করোনা সমাধানে আইডিয়াদাতাকে পুরস্কৃত করবে ‘এক্সিস’

মেডিভয়েস রিপোর্ট: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন বেড়েই চলেছে। বাংলাদেশে এ রোগে এখন পর্যন্ত ২৪ জন আক্রান্ত হলেও মৃত্যু হয়েছে দুইজনের। এছাড়াও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ৫০ জনসহ হোম কোয়ারেন্টাইন ১৪ হাজার জন। এ অবস্থায় এই বৈশ্বিক মহামরি প্রতিরোধে আইডিয়া সংগ্রহের উদ্দেশ্যে ‘কোভিড-১৯ সলিউয়েশন চ্যালেঞ্জ’ দিয়েছে এক্সিস মেডিকেল স্কুল। সেরা আইডিয়া দাতাদের পুরস্কৃত করার ঘোষণাও দেয়া হয়েছে।

রোববার (২২ মার্চ) সকালে এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেজে একটি ইভেন্ট খোলা হয়েছে। ২১ মার্চ থেকে শুরু হওয়া এ ইভেন্টটি চলবে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

আয়োজকরা জানিয়েছে, কোভিড-১৯ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে ভাইরাসের বিস্তার রোধ করার লক্ষ্যে সাধারণ জনগনের আইডিয়া সংগ্রহ করা হবে এই চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে। পরে বাছাইকৃত আইডিয়াগুলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

প্রতিষ্ঠানটির ফেসবুক পেজে বলা হয়েছে, সাধারন জনগনের কাছে হয়তো অনেক উদ্ভাবনী আইডিয়া আছে। তাদের কাছে পরিসংখ্যান ও তথ্যও রয়েছে। অনেকেই আছেন যে তারা হয়তো করোনা কন্ট্রোলে রাখতে পারা দেশগুলো নিয়ে স্টাডি করেছেন এবং নতুন কিছু আইডিয়া পেয়েছেন। তাদের অনেকেই আবার একটা অ্যাপ্সের কথা চিন্তা করেছেন, যা দিয়ে তৃণমূল পর্যায়ে অনেক বেশি সচেতনতা বৃদ্ধি করা সম্ভব এবং সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব। এরকম যে কোন প্রকারের সমাধান যদি কারো মাথায় থেকে থাকে, তাহলে ‘কোভিড-১৯ সলিউয়েশন চ্যালেঞ্জ’ এ অংশ নিয়ে তারা সংক্রমন প্রতিরোধে ভূমিকা রাখতে পারবেন।

এ ধরনের উদ্যোগের কারণ সম্পর্কে প্রতিষ্ঠানটি জানান, ‘মাত্র অল্প কিছুদিনে পুরো পৃথিবীকে নাড়িয়ে দিয়েছে ছোট একটি ভাইরাস। বড় বড় পরাশক্তি দেশ গুলো কুলিয়ে উঠতে পারছে না এই আল্ট্রা মাইক্রোস্কোপিক জীবাণুর সাথে। আমাদের সবার জীবনযাত্রায় কম বেশি প্রভাব ফেলতে সক্ষম হয়েছে ভাইরাসটি। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুহার আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। কোন সুনির্দষ্ট চিকিৎসা পদ্ধতি এখন পর্যন্ত নাই। এ অবস্থায় সবচেয়ে জরুরি যে কাজটা আমরা করতে পারি সেটি হচ্ছে তৃণমূল পর্যায়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যেই আমাদের এই উদ্যোগ।’

প্রতিষ্ঠানটি আরো জানিয়েছেন, আমরা তিনটি উদ্দেশ্যে নিয়ে কাজ করছি। সেগুলো হলো- সংগ্রহীত আইডিয়াগুলো যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছানো। অনলাইন, অফলাইনসহ সব ধরণের উপায় অবলম্বন করে আইডিয়াগুলো প্রচার করার মাধ্যমে কমিউনিটি সচেতনতা বৃদ্ধি করা। তরুণ এবং ক্রিয়েটিভদেরকে তাঁদের আইডিয়া শেয়ার ও বাস্তবায়নের প্ল্যাটফর্ম করে দেওয়া এবং আরও বেশি চিন্তাশীল হতে অনুপ্রাণিত করা।

কারা অংশ নিতে পারবেন?

যেকোন পেশা এবং যেকোন বয়সী মানুষ এ চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণ করতে পারবে। অংশগ্রহণকারীগন দলগতভাবেও এ চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণ নিতে পারবেন।

আইডিয়া কিভাবে পাঠাতে হবে?

আইডিয়া ওয়ার্ড ফাইল, পিডিএফ ফাইল বা ভিডিও লিংক হিসেবে পাঠানো যাবে। আইডিয়া পাঠানোর জন্য গুগল ফর্মে রেজিস্ট্রেশান ফর্ম ‘shorturl.at/cfjwR’ এবং যেকোন প্রশ্ন ও বিস্তারিত তথ্যের জন্য ইভেন্ট ‘shorturl.at/sMST8’ এ যোগাযোগের জন্য বলা হয়েছে।

পুরস্কার:

১ম পুরস্কার: ১০ হাজার টাকা
২য় পুরস্কার: ৫ হাজার টাকা
১ম পুরস্কার: ৩ হাজার টাকা

প্রসঙ্গত, বৈশ্বিক মহামরি করোনাভাইরাস এরই মধ্যে কেড়ে নিয়েছে ১৩ হাজারের অধিক মানুষের জীবন। ছড়িয়েছে ১৮০টিরও অধিক দেশে। সারাবিশ্বের মত বাংলাদেশের ছড়িয়েছে এই প্রানঘাতী ভাইরাস। দেশে এ পর্যন্ত  কোভিড-১৯ এ আক্রন্তের সংখ্যা ২৫। এ মধ্যে ২জন মৃত্যুবরণ করেছে এবং ৩জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে।

 বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

  ঘটনা প্রবাহ : করোনা ভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি