ফাহাম আব্দুস সালাম

ফাহাম আব্দুস সালাম

চিকিৎসা বিজ্ঞানী ও লেখক


২১ মার্চ, ২০২০ ১১:৩৬ পিএম

করোনার চিকিৎসায় হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে সতর্ক হোন 

করোনার চিকিৎসায় হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে সতর্ক হোন 

আমাকে বাংলাদেশের এক বন্ধু ফোন করে জিজ্ঞেস করলো দোস্ত ইনসেপ্টার Reconil (Hydroxy chloroquine) সেবনে নাকি করোনা আক্রান্ত রোগী ভালো হয়ে যাবে। আর এই আশায় সে ওষুধ মজুদ করতে যাচ্ছিল। 

আমার এই বন্ধুটি প্যারাসিটামল ছাড়া পৃথিবীতে আর কোনো ওষুধের নন-প্রোপাইয়েটোরি নাম বলতে পারবে কি না যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কিন্তু সে রেকোনিলের নাম জানে। 

তার কথা শুনে আমি তো স্তব্ধ হয়ে গেলাম। 

হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন এই অসুখের ওষুধ না। দয়া করে না জেনে এই ওষুধ খাবেন না। Hydroxychloroquine, narrow therapeutics index এর ওষুধ। মানে এই ওষুধ একটা নির্দিষ্ট ডোজের উপরে খেলে আপনার সাইড এফেক্ট হবে। এমনকি ক্ষেত্র বিশেষে এটা মারাত্মক হবে। 

ইলোন মাস্ক পৃথিবীর সবচাইতে বুদ্ধিমান ব্যবসায়ী হতে পারেন। কিন্তু তিনি অবশ্যই ফার্মাকোকিনেটিক্স বোঝেন না। তাঁর কথা শুনে ওষুধ খাবেন না। 

আপনারা অনেকেই মনে করেন একজন ডাক্তার চাইলেই একটা ওষুধ প্রেসক্রাইব করতে পারেন। কিন্তু আসলে বিষয়টি এ রকম না, বরং এমনটি করা একটা বেআইনি কাজ। ডাক্তার চাইলেই নিজের ইচ্ছা মতোন ওষুধ প্রেসক্রাইব করতে পারেন না। 

বিষয়টি বুঝিয়ে বলি। 

Hydroxychloroquine sulfate এর কথাই ধরুন। এটা একটা ছোট মলিকুল এবং বহু পুরনো মলিকুল। মূলত এটা ছিলো এন্টি-ম্যালেরিয়াল ড্রাগ। পরে দেখা গেলো আর্থারাইটিস এর বিরুদ্ধেও এর ব্যাপক কার্যকারিতা আছে।

এই জিনিসটাকে বলে ‘ইনডিকেশান’ অর্থাৎ একটা ড্রাগের কোনো অসুখের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা স্বীকৃত। ড্রাগের যে PI আছে, ওখানে দেখবেন আলাদা করে ইনডিকেশান লেখা থাকে। PI হলো যে কাগজটা ওষুধের প্যাকে থাকে। মন বলছে বলে ডাক্তার কোনো ওষুধ প্রেসক্রাইব করতে পারেন না। 

আপনি দেখেন শুধু একটা লাইন PI তে যে Hydroxychloroquine, আর্থারাইটিস এর বিরুদ্ধে প্রেসক্রাইব করা যেতে পারে। প্রথম যেই কোম্পানি এই একটা ইনডিকেশান এড করে, তাকে কয়েকশ মিলিয়ন ডলার খরচ করে ক্লিনিকাল ডেটা প্রোডিউস করতে হয়েছে। সেই ডেটা প্রায়ই এক হাজার পৃষ্ঠা অতিক্রম করে। সেই ডেটা এসেস করা হয়, টক্সিসিটি এসেস করা হয়। এই ডেটা এসেস করতেও ৬ মাস সময় লাগতে পারে। তারপরে একটা ইনডিকেশান অনুমোদন করা হয়। তারপর ডাক্তাররা সেটা প্রেসক্রাইব করতে পারেন। 

এই জিনিসটা মোটেও ছেলেখেলা না। ন্যারো থেরাপিউটিক্স ইনডেক্সের ক্ষেত্রে জিনিসটা আরো জটিল। কারণ আপনার যদি অন্য কমপ্লিকেশান থেকে থাকে বিশেষত বয়স্কদের ক্ষেত্রে তখন তো আরো বিপদ। খুব সতর্কতার সঙ্গে রোগীর বয়স, ওজন ও হিস্ট্রি বিবেচনা করে ডোজ ঠিক করতে হয়। 

তাই আপনাদের অনুরোধ: দয়া করে না বুঝে Hydroxychloroquine খাওয়া শুরু করবেন না। হিতে বিপরীত হতে পারে।  

এবং আপনারা যদি Hydroxychloroquine স্টক করা শুরু করেন তাহলে যাদের এটা প্রয়োজন (যেমন আর্থ্রাইটিক পেশেন্ট) তারা পাবেন না।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
রিজেন্ট ও জেকেজির প্রতারণার বিষয়ে ব্যাখ্যা

‘মহতী উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করতে গিয়ে প্রতারিত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর’

কঠোর পদক্ষেপের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির অবনতি: একদিনে সর্বোচ্চ ২,২৮,১০২ আক্রান্ত

রিজেন্ট ও জেকেজির প্রতারণার বিষয়ে ব্যাখ্যা

‘মহতী উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করতে গিয়ে প্রতারিত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর’

কঠোর পদক্ষেপের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির অবনতি: একদিনে সর্বোচ্চ ২,২৮,১০২ আক্রান্ত

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে