২০ মার্চ, ২০২০ ০৯:১১ পিএম

পাকিস্তানে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে স্থানীয়দের আগুন

পাকিস্তানে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে স্থানীয়দের আগুন
ছবি: বিবিসি

মেডিভয়েস ডেস্ক: পাকিস্তানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহভাজন রোগীদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আগুন দিয়েছে স্থানীয়রা। ঘটনাটি ঘটেছে বেলুচিস্তান প্রদেশের কোয়েটায়।

শুক্রবার (২০ মার্চ)  লন্ডন ভিত্তিক গণমাধ্যম বিবিসি এ্রর বাংলা শাখা ‘বিবিসি বাংলা’এ খবর  জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়, কোয়েটায় ইরান-ফেরত পাকিস্তানীদের বিচ্ছিন্ন রাখতে  কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে তৈরি করা হয়েছিল। স্থানীয়দের আশঙ্কা সন্দেহভাজন করোনাভাইরাস রোগীদের তাদের এখানে আনা হলে তাদের মাঝেও ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়বে। এক পর্যায়ে তারা কোয়েটার ওই ভবনে ঢুকে আগুন লাগিয়ে দেয়। 

স্থানীয় একজন বলেন, ‘এই এলাকায় যাদের আনা হচ্ছে আমার মতে তাদের জনশূন্য কোন স্থানে নিয়ে যাওয়া উচিৎ। আমাদের করোনাভাইরাসের সাথে লড়াইয়ের কোন প্রস্তুতি নেই’।

পাকিস্তানে যাদের করোনাভাইরাস ধরা পরছে তাদের অনেকেই এখানে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। মূলত এখানকার অবকাঠামোগত সুবিধার জন্য এই ভবনকে কোয়ারেন্টাইন ভবন বানানো হয়েছিল।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই স্থানটিকে পাকিস্তানের উহান বলে আখ্যায়িত করা হয়েছ। করোনা সংক্রমণের ভয় এবং নানা গুজবে স্থানীয়রা ভবনটিতে আগুন দেয়।

সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ জানিয়েছে, আগুনের ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। ভবনে অবস্থান করা ৭০০ লোককে অন্য স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। স্বানীয়দের আপত্তির কথা বিবেচনায় নিয়ে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারটি অন্যত্র  সরিয়ে নেয়া হবে। 

প্রসঙ্গত, এর আগে পাঞ্জাব প্রদেশেও একই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল। পকিস্তানে এখন পর্যন্ত ৪শত ৫৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছে ২ জন, সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েছে ১৩ জন।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
আন্তর্জাতিক এওয়ার্ড পেলেন রাজশাহী মেডিকেলের নার্স
জীবাণু সংক্রমণ প্রতিরোধে অসামান্য অর্জন

আন্তর্জাতিক এওয়ার্ড পেলেন রাজশাহী মেডিকেলের নার্স