২০ মার্চ, ২০২০ ০৮:৫১ পিএম

করোনাভাইরাসে কাতালোনিয়ার চার শহর কোয়ারেন্টাইনে 

করোনাভাইরাসে কাতালোনিয়ার চার শহর কোয়ারেন্টাইনে 

মেডিভয়েস ডেস্ক: করোনা মহামারীতে স্পেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালোনিয়ার চারটি শহরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।  আজ শুক্রবার (২০ মার্চ) আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। 

কাতালোনিয়ার গভর্নরের বরাত দিয়ে সিভিল সুরক্ষা সংস্থা স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার এক বিবৃতি জানিয়েছে, ইগুয়ালাদা, ওদেনা, সান্তা মারগারিদা দে মোন্টবুই এবং ভিয়ানোভা দেল ক্যামি শহরের ৬৬ হাজার অধিবাসী বাড়িঘর থেকে বের হতে পারবেন। তবে 'শহর ছেড়ে' কোথাও যেতে পারবেন না।

কাতালোনিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যালবা ভার্জেস সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কর্তৃপক্ষের নজর মূলত আঞ্চলিক রাজধানী বার্সেলোনা থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরের ৪০ হাজার বাসিন্দার ইগুয়ালাদার দিকে, যেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে।

বর্তমানে সেখানে ৫৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, যা গতকালের (বুধবার) তুলনায় ৩৮ জন বেশি। 

কারোনোভাইরাস মহামারীতে স্পেনে আজ শুক্রবার (২০ মার্চ) পর্যন্ত ৩ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৮৪ জন মারা গেছে।

এদিকে ইতালিতে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৬২৯ জন চিকিৎসক ও নার্স করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জন চিকিৎসকের। দেশটিতে মোট করোনা রোগীর ৮ দশমিক ৩ শতাংশই এখন ডাক্তার ও নার্স। গত আট দিনেই ১৫শ’ ডাক্তার-নার্স করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

ইতালির হেলথ ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, এতো বেশি সংখ্যক চিকিৎসক ও নার্স করোনা আক্রান্ত হওয়ায় এটা প্রমাণিত হয় যে তাদের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামের যথেষ্ট অভাব রয়েছে। 

প্রায় দুই সপ্তাহ ধরেই ‘লক ডাউন’ গোটা ইতালি। দেশটির ছয় কোটি জনগণ কার্যত গৃহবন্দি। এর মধ্যে প্রায় দেড় লাখ বাংলাদেশিও রয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এ সময়সীমা আরও বাড়ানো হতে পারে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৪১ হাজার ৩৫ জন। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৪ হাজার ৪শ ৪০ জন, মৃত্যুবরণ করেছে ৩হাজার ৪শ ৫জন।

করোনাভাইরাসে চীনের পর বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ইতালি। মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে, প্রতিদিন নতুন রোগী যুক্ত হওয়ায় আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে ইউরোপের দেশটি। এরইমধ্যে নতুন এক সংকটে পরেছে দেশটি। সেখানে চিকিৎসক ও নার্সরা গণহারে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। ফলে সেখানে করোনা রোগীর চিকিৎসা নিয়েও দেখা দিয়েছে শঙ্কা। 

কুর্মিটোলায় করোনা বেড পরিদর্শনকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসা না দিলে বেসরকারি হাসপাতালের লাইসেন্স বাতিল

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত