০২ মার্চ, ২০২০ ০৩:৫৩ পিএম

করোনা থেকে সুরক্ষায় মাস্ক কার্যকর নয়: মার্কিন চিকিৎসক

করোনা থেকে সুরক্ষায় মাস্ক কার্যকর নয়: মার্কিন চিকিৎসক

মেডিভয়েস ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত মানুষের সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়েছে। এ অবস্থায় উদ্বিগ্ন সাধারণ লোকজন মাস্ক কিনতে শুরু করেছে এবং বিভিন্ন দোকানগুলোতে জড়ো হতে শুরু করেছে। ফলে স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য জরুরি এই সুরক্ষা সরঞ্জামের ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

তবে, করোনাভাইরাস থেকে সাধারণ মানুষের সুরক্ষার জন্য মাস্ক কার্যকর নয় বলে জানিয়েছেন মার্কিন চিকিৎসক সার্জন জেনারেল জেরোম অ্যাডামস। শনিবার মার্কিন নাগরিকদের উদ্দেশ্য করে এক টুইটে লেখেন , ‘ফেইস মাস্ক কেনা বন্ধ করুন।’ সূত্র সিএনএন।

টুইটে ডা. অ্যাডামস লিখেছেন, করোনাভাইরাস থেকে সাধারণ মানুষের সুরক্ষার জন্য এগুলো কার্যকর নয়। কিন্তু অসুস্থদের সেবা-যত্নের জন্য স্বাস্থ্য সেবাদাতারা যদি তা না পান তাহলে এটা তাদের ও আমাদের কমিউনিটিকে ঝুঁকিতে ফেলবে।

তিনি এই ভয়াবহ ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সাধারণ মার্কিন নাগরিকদের বারবারহাত ধোয়া এবং অসুস্থ বোধ করলে ঘরে থাকা পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠা। একই সঙ্গে বিভিন্ন দেশের জন সাধারণের মধ্যে শুরু হয়েছে মাস্ক কেনার হিড়িক।

সিএনএন বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে মাস্কের চাহিদা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষিতে এই টুইট করেন ডা. অ্যাডামস। তবে যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সেন্টার এবং দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, করোনাভাইরাস ঠেকাতে মাস্কের ব্যবহার প্রয়োজনীয় নয়।

ডা. অ্যাডামসের আশঙ্কা অনুযায়ী, দেশে মাস্কের মজুদ ফুরিয়ে গেলে করোনা সংক্রমণের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে স্থ্যকর্মীরাও সেগুলো পাবে না। আর এই আশঙ্কা থেকেই তিনি এই আহ্বান জানালেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ ছড়ায়। এখন তা ৬০টিরও বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে ইতালি, ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ। সবশেষ গত শনিবার ও গতকাল রোববার যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া প্রথম তাদের কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে। প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকার নিজ দেশে কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানা যায়, ভাইরাসটিতে ৬০টিরও বেশি দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮ হাজারেরও বেশি মানুষ। আক্রান্ত মানুষের দিক দিয়ে চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক আক্রান্ত হয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ায়। আজ সেখানে নতুন করে আরও ৫০০ জনের আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। এতে দেশটিতে মোট আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা চার হাজারে পৌঁছেছে। এর মধ্যে শুধু চীনেই মারা গেছেন ২ হাজার ৯১২ জন। এরপরই রয়েছে ইরান। সরকারি তথ্য অনুসারে ইরানে ৫৪ জন মারা গেছেন।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত