২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০৬:৫৯ পিএম

মন্ত্রীর আশ্বাসে স্বাস্থ্য সহকারীদের ধর্মঘট প্রত্যাহার

মন্ত্রীর আশ্বাসে স্বাস্থ্য সহকারীদের ধর্মঘট প্রত্যাহার
স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ হেলথ এসোসিয়েশনের নেতাদের বৈঠক

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বেতন স্কেল, টেকনিক্যাল পদমর্যাদাসহ চার দাবিতে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছে স্বাস্থ্য সহকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ হেলথ অ্যাসোসিয়েশন।

আজ বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপির সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেন তারা। 

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। 

এতে বলা হয়েছে, বৈঠকে স্বাস্থ্য সহকারী অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা তাদের দাবিগুলো তুলে ধরেন। এ সময় তা পূরণে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে হেলথ অ্যাসোসিয়েশন তাদের পূর্বঘোষিত ধর্মঘট প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেন। 

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আশ্বাসে সন্তুষ্ট হয়ে আগামীকাল ২১ ফেব্রুয়ারি থেকেই টিকাদান কর্মসূচিতে অংশ নেবার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী জুলাইয়ের মধ্যে স্বাস্থ্য সহকারীদের জন্য স্পেশাল ডিপ্লোমা কোর্স চালুর লক্ষ্যে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে জেলা ভিত্তিক তালিকা করাসহ অ্যাসোসিয়েশনের অন্যান্য যৌক্তিক দাবিগুলোর সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সংগঠনের পক্ষে দাবিগুলো উত্থাপন করেন অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান সমন্বয়ক মো. এনায়েত রাব্বি লিটন। 

পরে তিনি জানান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী তাদের প্রায় সকল দাবির সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করেছেন। তাই আজ (বৃহস্পতিবার) থেকেই সকল ধরনের আন্দোলন বন্ধ ঘোষণা হলো এবং আগামীকাল থেকেই টিকাদান সংশ্লিষ্ট সকল কাজে অংশ নেবেন তারা।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপির সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ, হেলথ অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক রবিউল আলম, জাকারিয়া হোসেন ও মোর্শেদুল আলমসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। 

►সভার কার্যবিবরণী 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত