২৪ জানুয়ারী, ২০২০ ০২:০৬ পিএম

বেসরকারি চিকিৎসকদের ফি নির্ধারণ করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বেসরকারি চিকিৎসকদের ফি নির্ধারণ করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
ফাইল ছবি।

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক, চেম্বারে চিকিৎসকদের রোগী দেখার ফি সরকার নির্ধারণ করে দেবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশনে এ কথা বলেন তিনি। অধিবেশনের সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। 

টেবিলে উত্থাপিত আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য বেগম গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকারের প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক, চেম্বারে চিকিৎসকদের রোগী দেখা বাবদ ফি আদায়ের বিষয়ে একটি নীতিমালা প্রণয়নের ব্যাপারে সরকার চিন্তা-ভাবনা করছে। যোগ্যতা ও পদমর্যাদা অনুযায়ী জেনারেল প্র্যাকটিশনার থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক লেভেল পর্যন্ত সব মহলে গ্রহণযোগ্য রোগী দেখার ভিজিটের হার নির্ধারণ করা হবে। ভবিষ্যতে তা বাস্তবায়নের কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নুর মোহাম্মদের প্রশ্নের উত্তরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটেটিভদের ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যাপারে ইতোমধ্যে সরকারি হাসপাতালগুলোতে সপ্তাহে দু’দিন সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। এই দুই দিন অফিস সময়ের পর সাক্ষাৎ করতে পারবেন। আর বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে তাদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের নিয়ম-নীতি মোতাবেক মেডিকেল রিপ্রেজেন্টটেটিভদের সঙ্গে সাক্ষাতের সুর্নিদিষ্ট সময়সূচি নির্ধারণ করা দেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে।

প্রশ্নোত্তর পর্বে বিএনপির সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদের (চাপাইনবাবগঞ্জ-৩) লিখিত প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে যন্ত্রপাতি ক্রয়ে দুর্নীতির তদন্ত চলছে। তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, কেন্দ্রীয় ওষুধাগার, নিমিউ অ্যান্ড টিসি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে উচ্চপর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠনপূর্বক সারাদেশের হাসপাতালগুলোকে যন্ত্রপাতি ও ওষুধ ক্রয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। 

একই সঙ্গে দুর্নীতি দমন কমিশন ও দুর্নীতি প্রতিরোধের জন্য নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে। সকল হাসপাতালের যন্ত্রপাতি ও ওষুধপত্র ক্রয়সংক্রান্ত কার্যক্রম মনিটরিং করছে। ফলে বর্তমানে অনিয়ম ও দুর্নীতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে।

Add
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি