২২ জানুয়ারী, ২০২০ ০৯:৩২ এএম

রোগী-ডোনারের ব্লাড গ্রুপ না মিললেও কিডনি প্রতিস্থাপন সম্ভব

রোগী-ডোনারের ব্লাড গ্রুপ না মিললেও কিডনি প্রতিস্থাপন সম্ভব
‘মরণোত্তর অঙ্গদান ও সংযোজন’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে অতিথিবৃন্দ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ডোনারের সঙ্গে রোগীর ব্লাড গ্রুপ না মিললেও কিডনি প্রতিস্থাপন সম্ভব বলে জানিয়েছেন কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট এবং সোসাইটি অব অরগ্যান ট্রান্সপ্লানটেশনের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ডা. হারুন আর রশিদ।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সোসাইটি অব অরগ্যান ট্রান্সপ্লান্টের উদ্যোগে ‘মরণোত্তর অঙ্গদান ও সংযোজন’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।

অধ্যাপক হারুন আর রশিদ বলেন, সম্পূর্ণরূপে কিডনি বিকল রোগীদের কিডনি প্রতিস্থাপনের (ট্রান্সপ্লান্ট) জন্য এতদিন ডোনারের সঙ্গে ব্লাড ও টিস্যু ম্যাচিং বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু বর্তমানে শুধুমাত্র কিডনি রোগী ও ডোনারের টিস্যু টাইপ ম্যাচিং হলেই বিশেষ পদ্ধতিতে সফলতার সঙ্গে কিডনি প্রতিস্থাপন সম্ভব। 

তিনি বলেন, কিডনি ফাউন্ডেশন হাসপাতালে ইতোমধ্যেই সাতজন কিডনি রোগীর সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করেছে। প্রতিস্থাপনের পর কিডনি তারা সুস্থ আছেন।

সফল কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য দেশে প্রশিক্ষিত বিশেষজ্ঞ কিডনি সার্জন ও চিকিৎসকরা রয়েছেন জানিয়ে অধ্যাপক হারুন বলেন, বর্তমানে দেশের পাশাপাশি বিদেশি রোগীরাও বাংলাদেশে কিডনি প্রতিস্থাপন করাচ্ছেন।

তিনি বলেন, প্রতিস্থাপনের পর প্রথম বছর ৯৬ ভাগ কিডনি রোগী জীবিত থাকে। এছাড়া পাঁচবছর ৮০ ভাগ, ১০ বছর ৬০ ভাগ, ১৫ বছর ৪০ ভাগ এবং ২০ থেকে ৩০ বছরও কিছু রোগী বেঁচে থাকে।
 

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি