ডা. সাদেকুল ইসলাম তালুকদার

ডা. সাদেকুল ইসলাম তালুকদার

বিভাগীয় প্রধান, প্যাথলজি,

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ।


০৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১০:০৮ এএম
আপডেট: ০৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:১৯ এএম

মাইগ্রেইনের ব্যাথা: কারণ ও করণীয়

মাইগ্রেইনের ব্যাথা: কারণ ও করণীয়

মাইগ্রেইন নামে একটা মাথার ব্যাথা রোগ আছে। কপালের এক পাশে ব্যাথা করে বলে এটাকে ‘আধকপালি’ মাথার বিষ বলা হয় গ্রামে। শিশু থেকে শুরু করে যে কোনো বয়সী, যে কারও মাইগ্রেইন হতে পারে।

মাইগ্রেইনের ব্যাথার সাথে কারও কারও ক্ষেত্রে বমিও হতে পারে। এই সময় আলো ও কোলাহল সহ্য হয় না।

গবেষণায় দেখা গেছে, পরিবারে বাবা-মা’র কারও মাইগ্রেইন থাকলে সন্তানেরও এই ব্যথা হতে পারে। এছাড়া মাতৃত্বকালীন সময়ে নারীদের মাইগ্রেইন থাকতে পারে। তবে সবার ক্ষেত্রে না-ও দেখা যেতে পারে।

মানসিক চাপ বা কাজের চাপ থেকেও এই ব্যথা হতে পারে। কারণ, এই সময়ে মস্তিষ্কে ঠিকভাবে রক্তসঞ্চালন হয় না। ফলে মাথা ঝিমঝিম করে, মাথার ডান অথবা বাম পাশ ব্যথা করে।

ঠিক কোন কারণে মাথাব্যথা হয় তা এখনও স্পষ্ট নয়। বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মেডিকেল এক্সপার্টরা বিশ্বাস করেন, মস্তিষ্কের নার্ভগুলো যখন ভালোভাবে রক্তসঞ্চালন করতে পারে না তখনই মাইগ্রেইনের আক্রমন শুরু হয়। এ সময় মস্তিষ্কের টিস্যুগুলোতে রক্তচলাচলে বাধা পড়ে।

করণীয়:

কি করলে বা কি পরিবেশে মাইগ্রেইনের অ্যাটাক হয় তা বুঝতে হবে। সেই কারণ ও পরিবেশ থেকে দূরে থাকতে হবে। এমবিবিএস পাস করা ডাক্তার অথবা একজন নিউরোলজিস্ট দেখিয়ে ওষুধ সেবন করা যেতে পারে।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত