০১ নভেম্বর, ২০১৯ ০৩:৩৭ পিএম

নারী ইন্টার্ন চিকিৎসক লাঞ্ছিত: একজনের ২ বছরের সাজা

নারী ইন্টার্ন চিকিৎসক লাঞ্ছিত: একজনের ২ বছরের সাজা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: কুষ্টিয়ায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক নারী ইন্টার্ন চিকিৎসককে লাঞ্ছিত ও সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরের দায়ে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহজামান বিন শহীদ ওরফে অন্তরকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে কুষ্টিয়া জেলা জজ আদালত। 

গত ২৪ অক্টোবর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারপতি মুন্সী মশিউর রহমান আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। 

রায়ে আসামি শাহজামান বিন শহীদ ওরফে অন্তরকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও তার সঙ্গী রাসেলকে এক বছর ও শুভকে ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। পরে তাদেরকে কুষ্টিয়া জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি শহরের বশির নামে এক রোগী শ্বাসকষ্ট নিয়ে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেলে কয়েকজন স্বজন অভিযোগ করেন, অক্সিজেনের অভাবে তাঁদের রোগীর মৃত্যু হয়েছে। 

এ অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজামান বিন শহীদ ওরফে অন্তরসহ কয়েকজন চিকিৎসকদের ওপর চড়াও হন। কর্মরত নারী ইন্টার্ন চিকিৎসককে হাসপাতালের নিচতলায় গালিগালাজ ও আপত্তিকর কথা বলেন। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাঁর হাত মুচড়ে ধরেন এবং পরে তাঁরা কক্ষের জানালা ভাঙচুর করেন। 

খবর পেয়ে হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য রাশেদুল ইসলাম ছুটে এলে তাঁর ওপরও চড়াও হন অন্তর। এমনকি তাঁর চাকরি খেয়ে নেওয়ারও হুমকি দেন।

এ ঘটনায় দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে একই দিন রাতে শাহজামান বিন শহীদ ওরফে অন্তরকে দল থেকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি।

মেডিভয়েসকে বিশেষ সাক্ষাৎকারে পরিচালক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শতাধিক করোনা বেড ফাঁকা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি