২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০৪:৫১ পিএম

শেবাচিমের ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন ব্যবহার, ভুয়া চিকিৎসক আটক

শেবাচিমের ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন ব্যবহার, ভুয়া চিকিৎসক আটক

মেডিভয়েস রিপোর্ট: শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ব্যবহার করে চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগে জিয়াউল ইসলাম নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাকে লাখ টাকা অর্থদণ্ড করে আদালত।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বরিশাল নগরীর আগরপুরে ‘দ্য মুন মেডিক্যাল সার্ভিসেস সেন্টারে’ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতের জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসেল ইকবাল গণমাধ্যমকে জানান, মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহায়তায় ‘দ্য মুন মেডিকেল সার্ভিসেসে’ অভিযান চালানো হয়। এসময় জিয়াউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। সে নিজেকে চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিলেও কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।

তিনি জানান, শেবাচিম হাসপাতালের মেডিসিন ও কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. রফিকুল ইসলামের প্রেসক্রিপশন ব্যবহার করে আসছিলেন জিয়াউল ইসলাম। এছাড়া ওই মেডিকেলে সেন্টারের বাইরে ডা. রফিকুলের নামের সাইনবোর্ডও পাওয়া গেছে। পরে তাকে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। 

আগামীতে এ ধরনের কাজ করবেন না—এই মর্মে মুচলেকা এবং জরিমানার টাকা দিয়ে দেওয়ায় জিয়াকে ছেড়ে দেন আদালত।

এ বিষয়ে ডা. রফিকুল বলেন, ‘ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের পর জানতে পেরেছি আমার নাম ব্যবহার করে ভুয়া চিকিৎসা কার্যক্রম চলছে। মানুষের জান নিয়ে যারা ছিনিমিনি খেলে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানে থাকা উচিত।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত