১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:০৩ পিএম
আপডেট: ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:০৮ পিএম

গোপালগঞ্জে ভুয়া ইএনটি বিশেষজ্ঞ আটক

গোপালগঞ্জে ভুয়া ইএনটি বিশেষজ্ঞ আটক

মেডিভয়েস রিপোর্ট: নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞ সেজে দীর্ঘদিন ধরে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন মিজানুর রহমান। বিষয়টি জানতে পেরে রোগী সেজে তার চেম্বারে যান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ সালাউদ্দিন দিপু। আর তার হাতেই ধরা পরে ছয় মাসের সাজা পান ভুয়া এ এমবিবিএস ডাক্তার। জরিমানা করা হয়েছে এক লাখ টাকা। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) গোপালগঞ্জে এ দণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ সালাউদ্দিন দিপু জানান, ভুয়া সার্টিফিকেটধারী মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। তিনি মেডিনোভা ডায়াগোনস্টিক সেন্টারে ইএনটির (নাক, কান ও গলা) এমএস করা ডিগ্রি দেখিয়ে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোগী সেজে তিনি নিজেই সেখানে যান। এ সময় সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডাক্তার এহসানুল কবীর উপস্থিত ছিলেন। তিনি কাগজপত্র দেখে নিশ্চিত হন মিজানুর রহমান ভুয়া ডাক্তার। এমবিবিএস ডাক্তারদের বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশন নম্বর থাকে, যা মিজানুর রহমানের নেই।

জিজ্ঞাসাবাদে মিজানুর রহমান ভুয়া পদবীর কথা স্বীকার করেছেন জানিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ সালাউদ্দিন দিপু বলেন, এই অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৫২ ধারায় তাকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড  দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, মিজানুর রহমানের বাড়ি নড়াইল জেলার লোহাগাড়া উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামে। তার বাবা আব্দুল মোতালেব।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত