১৭ অগাস্ট, ২০১৯ ০২:১৮ পিএম

ডেঙ্গু নির্মূলে এবার ‘মোবাইল অ্যাপ’

ডেঙ্গু নির্মূলে এবার ‘মোবাইল অ্যাপ’

মেডিভয়েস রিপোর্ট: যত দিন যাচ্ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ততোই বৃদ্ধি পাচ্ছে। সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়া ডেঙ্গুজ্বরের ছোবল থেকে মুক্তির লক্ষ্যে উন্মোচন করা হয়েছে স্টপ ডেঙ্গু মোবাইল অ্যাপ।

এই অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের যেকোনো স্থানে মশার প্রজনন স্থান স্বয়ংক্রিয়ভাবে শনাক্ত করে মশা নিধনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া যাবে। ই-ক্যাব বাংলাদেশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অ্যাপটি তৈরিতে কারিগরি সহায়তায় দেয় ই-পোস্ট ও বিডি-ইয়ুথ।

এর আগে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে নতুন ওষুধ আমদানি করে। তাতেও যখন ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে আসেনি। তখন চালু করা হলো স্টপ ডেঙ্গু মোবাইল অ্যাপ। সরকারি-বেসরকারি নয়টি সংস্থা এক হয়েছেন পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার অংশ হিসেবে তাদের এই প্রচেষ্টা।

আজ শনিবার (১৭ আগস্ট) সকালে রাজধানীর কাকরাইলে জাতীয় স্কাউট ভবনে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এই অ্যাপ উদ্বোধন করা হয়।

অ্যাপটির ব্যবহার ও কার্যকারিতার ওপর আলোকপাত করে অনুষ্ঠানে জানানো হয়, অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে যে কেউ সারা দেশের যেকোনো স্থানে মশার প্রজনন স্থান স্বয়ংক্রিয়ভাবে শনাক্ত করতে পারবেন। এর মাধ্যমে পুরো দেশের মশার প্রজনন স্থানের ম্যাপিং তৈরি করা হবে। ফলে সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় সরকার খুব সহজেই কোন এলাকায় কতজন লোক নিয়োগ করতে হবে তা মশার জন্মস্থানের ঘনত্ব দিয়ে নির্ধারণ করতে পারবে। মশা নিয়ন্ত্রণে কী পরিমাণ ওষুধ কিনতে হবে বা ব্যবহার করতে হবে সে বিষয়টিও জানা যাবে। একইসঙ্গে পরবর্তী বছরের জন্য আগে থেকে সতর্কতামূলক প্রস্তুতি নেওয়া যাবে।

পাশাপাশি ডেঙ্গু আক্রান্ত ব্যক্তিকে কীভাবে কোথায় চিকিৎসা সেবা দেওয়া যাবে তা জানা যাবে বলে জানান ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সার।

একই অনুষ্ঠানে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ বিনির্মাণে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রথমবারের মত চুক্তি সইয়ের মাধ্যমে একজোট হয়েছে সরকারের পাঁচটি মন্ত্রণালয় ও বিভাগ এবং আরো চারটি সংস্থা।

এতে বাংলাদেশ স্কাউটস, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব), ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্থানীয় সরকার প্রকোশল অধিদপ্তর, আইসিটি বিভাগের অধীন এটুআই প্রকল্প এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা চুক্তি সই করেছে।

চুক্তি অনুযায়ী, পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সংক্রমিত রোগ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ, বিশ্লেষণের মাধ্যমে প্রযুক্তির সহায়তায় নাগরিক পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে যে যার অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালন করবেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর কমিশনার ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব ও বাংলাদেশ স্কাউটস এর সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ।

Add
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি