০৬ অগাস্ট, ২০১৯ ১০:২৯ এএম

ঈদে বেসরকারি হাসপাতালও চালু রাখার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

ঈদে বেসরকারি হাসপাতালও চালু রাখার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

মেডিভয়েস রিপোর্ট: আসন্ন ঈদুল আজহায় সরকারি হাসপাতালের মতো বেসরকারি হাসপাতালেও ডেঙ্গু চিকিৎসা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ঈদের সময় যদি সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালেও ডেঙ্গু চিকিৎসা চালু থাকে, তাহলে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলা আরও সহজ হবে।

সোমবার (৫ আগষ্ট) দুপুরে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। হাসপাতালে পৌঁছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নেন। এ সময় তিনি চিকিৎসক ও নার্সদের বিভিন্ন নির্দেশনা দেন।

ডেঙ্গু আক্রান্তের হার কমেছে উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্ত নিয়ে আমরা কিছুদিন আতঙ্কে ছিলাম। সবার প্রচেষ্টা এবং সচেতনতার কারণে ডেঙ্গু আক্রান্তের হার কমেছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা নিয়ে সবাই কাজ করছে। পরিস্থিতি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হতে আরও কয়েক মাস সময় লাগবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে। তাই ডেঙ্গুর সার্বিক পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক ভালো। আক্রান্তের হারও কমেছে। যার যার বাড়ি আর আঙিনা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করলেই দ্রুত এটি নির্মূল হয়ে যাবে। এর আগে মানিকগঞ্জ পৌরসভার ডেঙ্গু নিধন ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, পৌর মেয়র গাজী কামরুল ‍হুদা সেলিম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ ফটো, যুগ্ম সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আকন্দ, ২৫০ শয্যা জেলা হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আব্দুল আওয়াল, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. লুৎফর রহমান প্রমুখ।

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি