২৯ জুলাই, ২০১৯ ১০:৪৫ এএম

‘অতিরিক্ত মূল্য নিলে হাসপাতালের ল্যাব টেস্ট বন্ধ করে দেয়া হবে’

‘অতিরিক্ত মূল্য নিলে হাসপাতালের ল্যাব টেস্ট বন্ধ করে দেয়া হবে’

মেডিভয়েস ডেস্ক: ডেঙ্গু চিকিৎসায় অতিরিক্ত মূল্য নিলে সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের ল্যাব টেস্ট বন্ধ করে দেওয়া বলে সতর্ক করে দিয়েছেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। তিনি বলেন, সরকারের বেঁধে দেওয়া মূল্যের থেকে ১০ টাকা বেশি নিলেও তাদেরকে ধরা হবে। এ খবর জানিয়েছে দেশের অন্যতম সংবাদ মাধ্যম বাংলাট্রিবিউন।

এর আগে রোববার (২৮ জুলাই) ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা ঢাবি শিক্ষার্থীর চিকিৎসার বিল বিষয়ে স্কয়ার হাসপাতাল থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করেছে। ইতোমধ্যে প্রাথমিক যাচাই-বাছাই শেষে বেশি বিল নেয়ার প্রমাণও মিলেছে।

এবিষয়ে অধিদফতরের উপ পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের চিকিৎসার বিল বেশি আদায় হয়েছে বলে তার স্বজনরা অভিযোগ তুলেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এটা নিয়ে সবাই সমালোচনা করছে। বিষয়টি তদন্ত করতে আজ (রোববার) স্কয়ার হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার বিলের কিছু কাগজপত্র এনেছি।

তিনি বলেন, বিলের বিভিন্ন তথ্য যাচাই-বাছাই করছি। তারা কীভাবে চিকিৎসা দিয়েছে তা আমরা অন্য চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে তথ্য নিচ্ছি। প্রাথমিক তদন্তে ওষুধের দাম বেশি নেয়ার প্রমাণ পায়েছি। আরও বিভিন্ন খরচ রয়েছে; এসব নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলছি। তদন্ত শেষ হলে এ বিষয়ে হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব।

তিনি আরও বলেন, আমি স্কয়ার হাসপাতাল সেই ছাত্রকে যেসব ওষুধ দিয়েছে এসবের মূল্যের বিষয়ে আমি নিজে তদারকি করছি। আমি ওষুধের নামগুলো দিয়ে বাজারের দামের তালিকা চেয়েছি রাতের মধ্যে। আর অন্যান্য যেসব চার্জ আছে সেসবের বিষয়ে চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করবো। কয়েক জায়গায় দেখাবো, তাদের মতামত নেবো।

মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, এখন এমন একটা সময় মানুষ অনেকটা অসহায় বোধ করছে। আজকে আমি দেখলাম কয়েক জায়গায় মশার ক্রিম অডোমস এর দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। আমাদের টিমগুলো কাল (সোমবার) সকাল থেকে বিভিন্ন হাসপাতালে যাবে। আজকে কয়েকটি হাসপাতালের বিরুদ্ধে তথ্য পেয়ে গেছি। যদি সত্যতা পাওয়া যায় আমরা ব্যবস্থা নেবো। কালকে আমার ৪টি টিম সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এটা নিয়ে কাজ করবে।

এর আগে গত ২৬ জুলাই রাত ১০টার দিকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে মারা যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ কবির স্বাধীন। আগের দিন ২৫ তারিখ রাত ১১টায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। এই সময়ে চিকিৎসা বাবদ স্কয়ার হাসপাতালে বিল হয় ১ লাখ ৮৬ হাজার ৪৭৪ টাকা। বিশাল অংকের এ বিল নিয়ে অভিযোগ তোলেন ফিরোজের স্বজনরা। চিকিৎসা বাবদ হাসপাতালের দেয়া বিশাল অংকের বিলের কাগজ সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হলে এটি নিয়ে সমালোচনা এবং বিতর্ক তৈরি হয়। এর পরই বিষয়টি নিয়ে মাঠে নামে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

করোনা ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা

এক দিনে চিরবিদায় পাঁচ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

করোনা ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা

এক দিনে চিরবিদায় পাঁচ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

করোনা ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা

এক দিনে চিরবিদায় পাঁচ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

এক বছর প্রয়োগ হবে সেনা সদস্যদের দেহে

চীনে করোনার প্রথম ভ্যাকসিন অনুমোদন

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি