ঢাকা      মঙ্গলবার ২০, অগাস্ট ২০১৯ - ৫, ভাদ্র, ১৪২৬ - হিজরী



ডা. নুসরাত জাহান

অ্যাসোসিয়েট কনসালটেন্ট (অবস-গাইনি),

ইম্পেরিয়াল হসপিটাল লিমিটেড, চট্টগ্রাম।


ব্লাইটেড ওভাম: নির্ণয় ও চিকিৎসা

ব্লাইটেড ওভাম (blighted ovum/ anembryonic pregnancy/ empty sec) প্রেগনেন্সিতে একটি পরিচিত সমস্যা। এটি এক ধরনের এবরশন। ভ্রূণের ক্রোমোজোমাল আ্যবনরমালিটিকে এর প্রধান কারণ মনে করা হয়। যার ফলে ভ্রুণটি (embryo) প্রথম থেকেই নষ্ট হয়ে যায় এবং ডেভলপ (develop) করে না। এ সত্বেও রোগীর প্রেগনেন্সি টেস্ট পজিটিভ হয় এবং প্রেগনেন্সির অন্যান্য লক্ষণ গুলো দেখা যায়।

সাধারণত রোগীর কোন সমস্যা না থাকলেও অনেক সময় সামান্য ব্লিডিং হতে পারে এবং রুটিন আল্ট্রাসনোগ্রাম করে এই সমস্যাটি ধরা পড়ে। এ সম্পর্কিত একটি কেস হিস্ট্রি দেওয়া হল:

হাসনা হেনা, ৩৪ বছর বয়স। রোগীটি প্রায় ৫ বছর আগে বন্ধ্যাত্বজনিত সমস্যা নিয়ে আমার কাছে এসেছিল। অর্থনৈতিক সমস্যার জন্য এরপর আর কোনো ট্রিটমেন্টে তারা যায়নি। হঠাৎ করেই এক মাস আগে তার মাসিক বন্ধ হয় এবং প্রেগনেন্সি টেস্ট পজিটিভ আসে। নতুন অতিথির আগমনের আশায় তারা বুক বাঁধে, কিন্তু হঠাৎ করেই পিভি(per-vaginal) ব্লিডিং দেখা দেয়। পরবর্তীতে আল্ট্রাসনো করে দেখা যায় শুধু প্রেগনেন্সির ঘরটি (gestational sac) আছে, কোন এমব্রায়োনেই। স্থানীয় এক ডাক্তার তাকে প্রজেস্টেরন খেতে দেয় এবং ইনজেকশন দিতে থাকে। এরপর প্রায় এক মাস পর আবার ভ্যাজাইনাল ব্লিডিং শুরু হয়। তখন আরেকটি আলট্রাসনো করেসেই একইফাইন্ডিংস আসে এবং ব্লাইটেডওভাম কনফার্ম হয়।

এভাবে অনেক ক্ষেত্রেই এর ডায়াগনোসিসে কনফিউশন দেখা দেয় এবং সঠিক সময় হয় না। RCOG এর গাইড লাইন অনুযায়ী gestational sac 2.5 cm এর বেশি হলে এবং এর মধ্যে যদি কোন এমব্রায়ো না থাকে, তবে ৭ থেকে ১৪ দিন পরে আরেকটি আল্ট্রাসনোগ্রাম করে ডায়াগনোসিস কনফার্ম করতে হয়। কিন্তু প্রায়ই দেখা যায় আলট্রাসনোলজিসট কনফিডেন্ট না হলে ক্লিয়ার কাট কোন ডায়াগনোসিস না দিয়ে বারবার ফলো আপ আল্ট্রাসনোগ্রাম এর কথা লিখে দেয়।

এক্ষেত্রে রোগীদেরকে ডায়াগনোসিস বোঝানো ঝামেলা হয়ে যায় এবং অনেক ডাক্তাররাও এসময় বিভিন্ন ধরনের প্রোজেস্টেরন ঔষধ (যেমন মাইক্রোজেস্ট) এবং ইনজেকশন দিতে থাকেন। এতে করে রোগীর ব্লিডিং বন্ধ হয়ে যায়। ফলাফল, ডায়াগনোসিস দেড়িতে হয়। এই ধরনের ট্রিটমেন্ট blighted ovum/ empty set এর চিকিৎসায় সময় এবং অর্থের অপচয় ছাড়া কোন পজিটিভ রেজাল্ট আনে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ঈদে ভোজন-পূর্ব যে বিষয়গুলোতে দৃষ্টি রাখবেন

ঈদে ভোজন-পূর্ব যে বিষয়গুলোতে দৃষ্টি রাখবেন

শুরুতেই ঈদ মোবারক। কোরবানী ঈদের সবচেয়ে আনন্দদায়ক, আকর্ষনীয় শেষ পর্ব- মাংস কাটা,…

ব্যথাবিলাস ও আমাদের ব্যথাসহনীয়া ট্যাবু

ব্যথাবিলাস ও আমাদের ব্যথাসহনীয়া ট্যাবু

ব্যথা নিয়ে আমার নিজের মাথাব্যথা কম। আমার নিজের পেইন থ্রেসল্ড খুবই বেশী।…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর