ঢাকা      সোমবার ২৩, সেপ্টেম্বর ২০১৯ - ৭, আশ্বিন, ১৪২৬ - হিজরী



ডা. মো. ফজলুল কবির পাভেল

সহকারী সার্জন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল


ক্যান্সার আক্রান্তের যতসব কারণ

ক্যান্সার হলে আর রক্ষা নেই এ কথা বহুল প্রচলিত। যদিও বর্তমানে অনেক ভাল ভাল চিকিৎসা বেরিয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে ধরা পড়লে অনেক ক্যান্সার ভাল হয়ে যায়। আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্য সচেতন নয়। ক্যান্সার থেকে বাঁচতে প্রথমত দরকার সচেতনতা। ক্যান্সারের বিভিন্ন কারণ আছে। সব কারণ আজও জানা সম্ভব হয়নি।

তবে যেসব কারণ জানা গেছে তার মধ্যে আছেঃ

১. সুপারি

২. জর্দা

৩. ধূমপান

৪. অনিয়ন্ত্রিত খাদ্য গ্রহণ

৫. মদপান

৬. তামাকপাতা 

৭. ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্যের সংস্পর্শ

৮. ভাইরাস (হেপাটাইটিস বি ও সি, এইচআইভি, এবস্টেন বার ভাইরাস, সাইটোমেগালো ভাইরাস)

৯. ব্যাকটেরিয়া

১০. পরজীবী (সিস্টোসোমিয়াসিস) 

১১. তেজস্ক্রিয়তা

১২. বায়ুদূষণ

১৩. কীটনাশক

১৪. রঙিন খাবার

১৫. সূর্যকিরণ

১৬. পরিবেশ দূষণ

১৭. আর্সেনিক ইত্যাদি।

উপরের কারণগুলো দূর করতে পারলে বেশিরভাগ ক্যান্সার প্রতিরোধ করা সম্ভব। ক্যান্সার প্রতিরোধে তাই নিয়ম-কানুন মেনে চলুন। ক্যান্সার হয়ে গেলে সেই ব্যাক্তির আর তার পরিবারের কষ্টের শেষ থাকেনা। প্রতিরোধ করার চেষ্টাই সেজন্য আগে করা উচিত।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

হার্ট ফেইলিউর: পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা

হার্ট ফেইলিউর: পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা

কেরামত মোল্লা সারারাত সোজা হয়ে বসে কাটিয়ে দেন। ঘুমে ঢুলুঢুলু চোখ, ঘুমাতে…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস