১৬ জুন, ২০১৯ ০২:২১ পিএম

বাজেটে স্বাস্থ্য খাত বরাবরের মতই বঞ্চিত: জাসদ

বাজেটে স্বাস্থ্য খাত বরাবরের মতই বঞ্চিত: জাসদ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: প্রস্তাবিত বাজেটে স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে ‘বাস্তব পদক্ষেপ’ না দেখে হতাশা প্রকাশ করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জোটসঙ্গী দল বাংলাদেশ জাসদ। বাজেট বাস্তবায়নের সক্ষমতা বৃদ্ধিরও কোনো পদক্ষেপ ‘নেই’ বলে উল্লেখ করেছে দলটি।

শনিবার জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এসব কথা জানানো হয়েছে। 

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “গতবারের তুলনায় এ বছর শিক্ষা খাতে বাজেট বেড়েছে সত্য, কিন্তু সর্বজনীন মানসম্মত শিক্ষার জন্য এখনো তা খুবই অপ্রতুল। আর স্বাস্থ্য খাত বরাবরের মতই বঞ্চিত, এ বঞ্চনা দিয়ে ২০৩০ সালের মধ্যে কিভাবে সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বাস্তবায়িত হবে তা দেশবাসীর বোধগম্য নয়।”

২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটকে বিদায়ী বছরের সংশোধিত বাজেটে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হবার করুণ ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি উল্লেখ করে বলা হয়েছে, “লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হবার পাশাপাশি বিদেশি ও আভ্যন্তরীণ ঋণ নিয়ে ঘাটতি পূরণের লজ্জা ঢাকতে দিয়ে পরের বছর আরও বড় আকারের বাজেট পেশ করা হয়েছে। কিন্তু সাথে সাথে আরো বড় আকারের ঘাটতি এবং আরও বড় দেশি-বিদেশি ঋণের ফাঁদে দেশ আটকে যাচ্ছে।”

বাজেট বাস্তবায়নের সক্ষমতা বাড়ানো, প্রত্যক্ষ আয়কর বাড়ানো, কর ফাঁকি রোধ, কালো টাকা উদ্ধার ও ব্যাংক কেলেঙ্কারি প্রতিরোধের কোনো বাস্তব প্রাতিষ্ঠানিক কর্মকৌশল এ বাজেটে নেই উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “বাজেটে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার বাড়ার পরিসংখ্যান দেখিয়ে আত্মতুষ্টি আছে, কিন্তু এ প্রবৃদ্ধি যে বেকারদের কাজ সৃষ্টি করছে না, উৎপাদশীল খাতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে না, বিভিন্ন ধরনের বৈষম্য বাড়িয়েই চলেছে, তার জন্য উদ্বেগটুকুও নেই, সমাধানের পদক্ষেপ তো দূরের কথা।”

জাসদ নেতারা বলেন, হতদরিদ্র ও প্রান্তিক মানুষ, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা বলয় ও আকার কিছুটা হলেও বাড়ানো হয়েছে, কিন্তু দেশের উন্নয়ন পরিসংখ্যানের সাথে সঙ্গতি রেখে প্রান্তিক মানুষদের জন্য এ পদক্ষেপ ‘পর্বতের মূষিক প্রসবের মতোই’

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত