১৩ জুন, ২০১৯ ১০:১৯ এএম

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ কর্তৃক ২ চিকিৎসককে মারধরের অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশ কর্তৃক ২ চিকিৎসককে মারধরের অভিযোগ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: চাঁপাইনবাবগঞ্জে চিকিৎসাধীন এক পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর গর্ভের মৃত বাচ্চাকে অপারেশনের মাধ্যমে অপসারণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চিকিৎসকসহ তিন জনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ ও চিকিৎসক নেতারা দীর্ঘক্ষণ রুদ্ধদার বৈঠক শেষে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে বলে জানা যায়।

বুধবার রাত ৮টার দিকে জেলা শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য খাদেমুল ইসলাম স্ত্রীর গর্ভে মৃত সন্তান নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের সেবা ক্লিনিকে ভর্তি হন বুধবার বিকেলে। সন্ধ্যা ৬ টার দিকে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে মৃত শিশু অপসারণ করানো হয়। এ ঘটনার পর গোয়েন্দা পুলিশের পাঁচ-ছয় জন সদস্য ওই ক্লিনিকে গিয়ে অসদাচরণ শুরু করে। এক পর্যায়ে চিকিৎসক ও কর্মচারীর সঙ্গে পুলিশের ধাক্কাধাক্কি হয়। একপর্যায়ে তারা চিকিৎসক ও এক কর্মচারীকে মারধর করেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান ও চিকিৎসক নেতারা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ধাক্কাধাক্কিতে চিকিৎসক ইসমাইল হোসেনসহ এক কর্মচারীর শার্ট ছিড়ে যায়। এ সময় ক্লিনিকে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুল আলম খান ও চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। 

মারধরের শিকার দুই চিকিৎসক ময়েজ উদ্দিন ও ইসমাইল হোসেন জানিয়েছেন, চিকিৎসক নেতাদের উপস্থিতিতে পুলিশের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়ায় বিষয়টি মীমাংসা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের বলেন, ভুল বোঝাবুঝির কারণেই এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে। ডাক্তারদের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে আর কোনও অভিযোগ নেই।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি