বাংলাদেশে শিশু স্বাস্থ্যের অগ্রগতি প্রশংসনীয়: ইউনিসেফ


মেডিভয়েস রিপোর্ট: শিশু শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অগ্রগতির প্রশংসা করেছেন ইউনিসেফের নতুন কান্ট্রি প্রতিনিধি টোমো হোজুমি। পাশাপাশি শিশুদের সামগ্রিক উন্নয়নে সরকারের সঙ্গে ইউনিসেফ কাজ করে যাবে বলে আশ্বস্ত করেন তিনি।

মঙ্গলবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করার সময় টোমো হোজুমি এসব কথা বলেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।  

ইউনিসেফের নতুন কান্ট্রি প্রতিনিধি বলেন, তৃণমূল থেকে জাতীয় পর্যায় পর্যন্ত শিশুদের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য ইউনিসেফ বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কাজ করে যাবে।

এ সময় নতুন কান্ট্রি প্রতিনিধিকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। একই সঙ্গে ১৯৭২ সাল থেকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও শিশুদের সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশ ও ইউনিসেফের মধ্যে দীর্ঘ সহযোগিতার জন্য সন্তোষ প্রকাশ করেন।

ড. মোমেন প্রাথমিক শিক্ষায় উপস্থিতি এবং শিশু ও মাতৃমৃত্যু হ্রাসসহ শিশু সংশ্লিষ্ট সকল সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশের সক্ষমতা তুলে ধরেন। তিনি সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশে সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার প্রদানের বিষয়টি পুনর্ব্যক্ত করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী সকলের জন্য শিক্ষা, শিক্ষা ক্ষেত্রে লিঙ্গ সমতা, স্কুল থেকে শিশুদের ঝরে পড়া হ্রাস, সামাজিক নিরাপত্তা বৃদ্ধি, নিরাপদ পানীয় জল প্রাপ্তি এবং প্রান্তিক শিশুদের জন্য সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো নিশ্চিত করতে সরকারের সঙ্গে শরিক হওয়ার জন্য ইউনিসেফকে ধন্যবাদ জানান।