ঢাকা      সোমবার ২৪, জুন ২০১৯ - ১০, আষাঢ়, ১৪২৬ - হিজরী

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষের কারাদণ্ড

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. মো. সোলেমান শেখকে তিনটি ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)-এর ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফরিদপুরের বিশেষ জজ আদালতের হাকিম মো. মতিয়ার রহমান এ রায় দেন।

ডা. সোলেমান শেখ বর্তমানে পলাতক রয়েছে উল্লেখ করে দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা প্রথম আলো জানায়, আদালত সরকারি অর্থ আত্মসাৎ করার দায়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সোলেমান শেখকে দোষী সাব্যস্ত করে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৪০৯ ধারায় পাঁচ বছরের সশ্রম এবং ৯১ হাজার ২৯১ টাকা জরিমানা করেন।

জরিমানা অনাদায়ে তাঁকে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। একই আইনের ৪২০ ধারায় আদালত তাঁকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং নগদ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানা অনাদায়ে তাঁকে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

একই সঙ্গে আদালত দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মো. সোলেমান শেখকে দোষী সাব্যস্ত করে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং নগদ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানা অনাদায়ে তাঁকে আরও তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

ওই আদালতের পেশকার সাধন কুমার দাসের বরাত দিয়ে প্রথম আলো জানায়, ডা. সোলেমান শেখ বর্তমানে পলাতক আছেন।মো. সোলেমান শেখকে সব সাজা একসঙ্গে ভোগ করতে হবে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় ফরিদপুর সূত্রের বরাত দিয়ে প্রথম আলো আরও জানায়, ২০০৪ সালের ১৫ এপ্রিল দুদক সরকারি ৯১ হাজার ২৯১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের তৎকালীন অধ্যক্ষকে আসামি করে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করে। মামলাটি তদন্ত করে দুদক ফরিদপুরের সাবেক সহকারী পরিচালক মো. ইকবাল হোসেন অধ্যক্ষকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।  

দুদকের বিশেষ কৌঁসুলি ফরিদপুর জজ কোর্টের আইনজীবী নারায়ণ চন্দ্র দাস বলেন, মামলা দায়েরের পর দীর্ঘ সাক্ষ্য ও শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুরে রায় হয়।

রায়ের সংক্ষিপ্ত বিবরণ:

প্রতরণা ও জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের দায়েরকৃত মামলায় উক্ত আসামিরর বিরুদ্ধে The panel code 1860 এর ৪০৯ ধারার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় উক্ত ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে তাকে ০৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৯১,২৯১/- টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ০৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হলোও একই আইনের ৪৬৮ ধারার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় উক্ত ধারায় দোষী সাব্যস্থ করে তাকে ০৫ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৫,০০০/- টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় এবং ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় উক্ত ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে তাকে ০৫ (পাঁচ) বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ৫,০০০/- টাকা অর্থদন্ড, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন ফরিদপুরের বিজ্ঞ স্পেশাল জজ আদালত।

আসামীর বিরুদ্ধে উপরোক্ত সকল ধারার অপরাধের সাজা একত্রে গণনা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

অনারারি চিকিৎসকদের ভাতা প্রদানে নীতিগত সিদ্ধান্ত

অনারারি চিকিৎসকদের ভাতা প্রদানে নীতিগত সিদ্ধান্ত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: অনারারি চিকিৎসকদের ভাতা প্রদানে নীতিগত সিধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সরকার…

চিকিৎসাধীন নার্সের মৃত্যুতে রামেক হাসপাতালে ভাঙচুর

চিকিৎসাধীন নার্সের মৃত্যুতে রামেক হাসপাতালে ভাঙচুর

মেডিভয়েস রিপোর্ট: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দিলারা খাতুন নামে এক…

‘দুর্বল পরিকল্পনার কারণে স্বাস্থ্যে সর্বনিম্ন বরাদ্দ’ 

‘দুর্বল পরিকল্পনার কারণে স্বাস্থ্যে সর্বনিম্ন বরাদ্দ’ 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ২৫…

বিএসএমএমইউতে ৩৫৩ শ্রবণ প্রতিবন্ধীর কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট সম্পন্ন

বিএসএমএমইউতে ৩৫৩ শ্রবণ প্রতিবন্ধীর কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট সম্পন্ন

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ২০১০ সাল থেকে শুরু…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর