ঢাকা      মঙ্গলবার ১৮, জুন ২০১৯ - ৫, আষাঢ়, ১৪২৬ - হিজরী



মো: গোলাম মোস্তফা

চিকিৎসক ও লেখক


ঘামাচি নামক চর্মরোগ থেকে বাঁচতে করণীয়

মূলত sweatig glands obstruction এবং  Rupture of eccrine sweat ducts. প্রচন্ড গরমে নাকাল দেশবাসী। তীব্র গরম আর রোদের দাবানলে যেমন দেশ পুড়ছে তেমনি মানুষের দেহের ত্বকেও নানান সমস্যা দেখা যাচ্ছে। এসবের মধ্যে সবচেয়ে কমন হলো ঘামাচি। তীব্র অসহনীয় এই যন্ত্রণা শুরু হলে খুবই অসহ্য লাগে। এ সময় সামনে যে যা কিছু পায় (চিরুনি, দা, কাস্তে, নখ, লাঠি) তা দিয়েই দিয়ে চুলকাতে থাকেন। আর এভাবে চুলকিয়ে অনেকের ত্বকে ক্ষত হয়ে যায়।

মানবদেহের sweating glands এর মুখ যখন ময়লা ও ব্যাক্টেরিয়ার জন্য আটকে যায়, তখন রেচনতন্ত্র ঠিকমত কাজ করতে পারে না। অর্থাৎ ঘাম দেহ থেকে  বের হতে পারে না। ত্বকের মৃতজীবি কোষ এবং ব্যাক্টেরিয়া Staphylococcus epidermidis জীবাণু ত্বকের লোমকূপের সঙ্গে লুকিয়ে থাকা ঘামগ্রন্থির মুখ বন্ধ করে দেয়। ফলে, sweating glands obstruction হয়ে লাল ফুসকুড়ি বা দানার আকারে ফুলে ওঠে যা Miliaria বা ঘামাচি তৈরি হয়।

ঘামাচি চুলকানির পাশাপাশি জ্বালাপোড়া করতে পারে। বড়দের বেলায় ত্বকের যে সব স্থানে ভাঁজ পড়ে এবং কাপড়ের ঘষা লাগে, যেমন- বগল, ঘাড়, কুঁচকি, কাঁধে, বুকে, পেটে, নাভির চারপাশে, পিঠে, হাতে ও পায়ের রানে, অনেক সময় মুখেও হয়ে থাকে। আর শিশুদের ক্ষেত্রে সবত্রই হতে পারে।

অতিরিক্ত ঘামাচির ফলে লাইফ থেটিং কন্ডিশনেও চলে যেতে পারে, যেমন- Heat stroke! তাছাড়া ব্লাড প্রেসার কমে যাওয়া, মাথা ব্যাথা, বমিবমি ভাব, অবসাদ, হার্টবিট বেড়ে যাওয়া ও তন্দ্রাহীনসহ নানা জটিলতা দেখা যেতে পারে। কারণ, দেহের রেচন প্রক্রিয়া সর্ম্পূন হবে না। দেহের বিষাক্ত ক্ষরিত পদার্থ sweating gland obstruction থাকার জন্য বের হতে পারবে না।

ঘামাচি সাধারণত তিন ধরণের হয়ে থাকে-

১. Miliaria Crystalline -যখন  Duct ruptures হয়ে stratum Corneum.

২. Miliaria Rubra - যখন duct ruptures হয়ে Epidermis যায়।

৩. Miliaria profunda- যখন duct ruptures হয়ে dermoepidermal junction যায়।

ঘামাচি থেকে রক্ষার্থে অনেকেই জেনে না বুঝে বিভিন্ন রকম টেলকম পাউডার ব্যবহার করেন। সেক্ষেত্রে বিপরীত প্রতিক্রিয়া হওয়ার সম্ভবনা বেশি। এর ফলে ত্বকের মারাত্নক ক্ষতি হয়ে যায়।

ঘামাচি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য Calamine Lotion ব্যবহার করলেই যথেষ্ট। তবে, বিশেষ ক্ষেত্রে severe condition এ low -mid potency topical steroid অল্প দিনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। আর বেশি Itchy বা চুলকানি থাকলে, সেকেন্ড জেনারেশন নন সেডিটিভ এন্টিহিস্টামিন (Fexofenadine) খাওয়া যেতে পারে।

যেসব নিয়মকানুন মেনে চলা আবশ্যক:

১. নরম ও সফট কাপড় পরিধান করতে হবে।

২. রৌদ্রের আলোতে কম যেতে হবে।

৩. শীতলতম স্থানে থাকতে হবে।

৩. ঠান্ডা পানি দিয়ে নিয়মিত গোসল করতে হবে।

৪. চুলকানি জাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে।

৫. গার্মেন্টস ডাস্ট পোড্রাক্ট বা ফেক্টরি থেকে দুরে থাকতে হবে।

৬. ধুলা বালি ও ময়লা এভায়েড করতে হবে।

৭. বিভিন্ন প্রকার জিনিস দিয়ে শরীর চুলকানো থেকে বিরত থাকতে হবে।

৮. আবোল তাবোল টেলকম পাউডার ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

যেসব ক্যাপসুলে হতে পারে মারাত্মক শ্বাসকষ্ট!

যেসব ক্যাপসুলে হতে পারে মারাত্মক শ্বাসকষ্ট!

এ্যাজমা ও ক্রনিক অবষ্টাক্টিভ পালমোনারি ডিজিজস (COPD) রোগীদের ব্যথানাশক ওষুধ (NSAIDs), প্রেসারের…

রাতে দাঁতব্রাশ না করায় ক্যান্সারসহ ভয়াবহ বিপদের আশঙ্কা

রাতে দাঁতব্রাশ না করায় ক্যান্সারসহ ভয়াবহ বিপদের আশঙ্কা

সকালের চেয়ে রাতে টুথব্রাশ করা ১০০গুন বেশি জরুরী। কারণ, রাতে ঘুমানের পর…

লিচু আতঙ্ক ও আজগুবি গুজব

লিচু আতঙ্ক ও আজগুবি গুজব

এই সিজনে প্রায় হাজার খানেক এবং প্রতি বসায় মিনিমাম পঞ্চাশটা করে লিচু…

দাঁতের রোগে উদাসীনতা নয়

দাঁতের রোগে উদাসীনতা নয়

মুখ ও দাঁতের রোগে জীবনে কখনো ভোগেননি এমন কাউকে পাওয়া সত্যি দুষ্কর।…

রক্ত দান না জীবন দান?

রক্ত দান না জীবন দান?

তখন ফিফথ ইয়ারে পড়ি। মেডিসিনে হুমায়ুন স্যারের ইউনিটে প্লেসমেন্ট। স্যার শান্ত, সৌম্য,…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর