২৪ মে, ২০১৯ ১১:৫৩ এএম

দুই দশক পর ড্যাবের কাউন্সিল আজ

দুই দশক পর ড্যাবের কাউন্সিল আজ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দুই দশক পর বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাবের কাউন্সিল (কেন্দ্রীয় সম্মেলন) শুরু হয়েছে।  এ কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। 

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল ১০টায় শুরু হওয়া এ কাউন্সিল চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। 

এতে সভাপতি পদে ডা. হারুন অর রশিদ ও ডা. মোস্তাক রহিম স্বপন এবং মহাসচিব পদে ডা. আব্দুস সালাম ও ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু নির্বাচন করছেন। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটিসহ সাংগঠনিক জেলা শাখার ২৬৫ জন ভোটের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় পাঁচ পদে নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন।

ড্যাবের দফতরের দায়িত্বে থাকা ডা. হারুন অর রশিদ খান রাকিব যুগান্তরকে বলেন, সভাপতি, সিনিয়র সহসভাপতি, মহাসচিব, কোষাধ্যক্ষ ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব- এই পাঁচ পদে নির্বাচন হচ্ছে। আজ রাতেই ফল ঘোষণা করা হবে।

 

এবার কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদ নির্বাচনে মোট কাউন্সিলর ২৬৫ জন। এদের মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির ১৬১ জন সদস্য ও বাকিরা সাংগঠনিক জেলা শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অথবা আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব।

প্রসঙ্গত, ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ড্যাবের ১৬১ সদস্যবিশিষ্ট নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারকে আহ্বায়ক, ডা. ওবায়দুল কবির খান সদস্য সচিব ও কোষাধ্যক্ষ করা হয় ডা. মহিউদ্দিন ভূঁইয়া মাসুমকে। ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তিনজন ছাড়া আর কোনো নাম ঘোষণা করা হয়নি। পরে ১০ ফেব্রুয়ারি আরেক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ১৬১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটির নাম প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, নতুন এ আহ্বায়ক কমিটি আগামী তিন মাসের মধ্যে কেন্দ্রীয় সম্মেলন করে নবনির্বাচিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করবে। এ ছাড়া আহ্বায়ক কমিটির শীর্ষ পদের নেতারা নতুন কমিটির শীর্ষ পদে থাকতে পারবেন না বলেও জানানো হয়।

জানা গেছে, ১১ মে বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির তিন মাসের মেয়াদ শেষ হয়। পরে কমিটির সদস্যরা বিএনপির হাইকমান্ডের কাছ থেকে সময় বাড়িয়ে নেন। এর মধ্যে আহ্বায়ক কমিটির নেতারা বিভিন্ন সাংগঠনিক জেলা সফর করেন এবং ৬৫টি সাংগঠনিক জেলার নতুন কমিটি ঘোষণা করেন।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি