ঢাকা      মঙ্গলবার ২৫, জুন ২০১৯ - ১১, আষাঢ়, ১৪২৬ - হিজরী



ডা. মো. আজিজুর রহমান

কন্সাল্ট্যান্ট,
শিশু কিডনি বিভাগ,
কিডনি ফাউন্ডেশন হসপিটাল ও রিসার্চ ইন্সিটিউট, ঢাকা।


শিশুদের উচ্চ রক্তচাপঃ এক অবহেলিত অধ্যায়

শিশুদের রক্তচাপ মাপতে গেলেই রোগীর বাবা-মা সবসময়ই যে প্রশ্নটি করেন সেটি হল বাচ্চার আবার প্রেসার!! বাচ্চাদের কি উচ্চ রক্তচাপ হয়? উত্তর হল হয় এবং ক্ষেত্র বিশেষে বড়দের থেকে খুব খারাপ হয়।

বাংলাদেশে, এমনকি পার্শ্ববর্তী বেশ কিছু দেশেই শিশু রোগীদের রক্তচাপ মাপা সাধারনত মাপা হয়না। এই বিষয়ে সচেতনতা খুব কম কিংবা রোগীর চাপ বেশি বলেই হয়তো চিকিৎসা সংক্রান্ত এই গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণটি (Clinical sign)অবহেলিত আমাদের দেশে। গুটিকয়েক শিশু বিশেষজ্ঞ এবং বেশিরভাগ শিশু কিডনি বিশেষজ্ঞ তাদের কর্মস্থলে শিশুদের রক্তপচাপ মাপার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি রাখেন।

শিশুদের ক্ষেত্রে উচ্চ রক্তচাপ কাকে বলে:

বড়দের ক্ষেত্রে যেমন রক্তচাপ140/90 mmHg এর উপর হলেই তাকে উচ্চ রক্তচাপ বলা হয়, শিশুদের ক্ষেত্রে উচ্চ রক্তচাপএর এমন কোন নির্দিষ্ট সংখ্যা নেই। বয়স, লিঙ্গ, উচ্চতা বিবেচনায় নির্দিষ্ট চার্টে মিলিয়ে শিশুদের রক্তপচাপ যদি 95th centile এর উপর থাকে তবে তাকে উচ্চ রক্তপচাপ বলে। 

কোন কোন শিশুরোগীদের অবশ্যই রক্তপচাপ মাপা উচিত:

১. ৩ বছর বা তার ঊর্ধ্বে বয়স যাদের ,তাদের অবশ্যই বছরে একবার মাপা উচিত।

২. স্থুলকায় শিশু (Obese)।

৩. শিশু ডায়াবেটিস রোগী।

৪. ৩ বছরের কম বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত রোগীদের রক্তচাপ মাপতে হবে।

৫. যাদের Prematurity / ৩২ সপ্তাহের কম সময়ে জন্মের ইতিহাস আছে।

৬. যাদের জন্মগত হৃদরোগ আছে।

৭. যাদের জন্মগত কিডনীরোগ আছে।

৮. যাদের ঘন ঘন প্রস্রাবে ইনফেকশন হয়।

৯. যাদের অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা আছে।

১০. যাদের ক্যান্সার আছে।

১১. যারা এমন ঔষধ সেবন করে যা খেলে রক্তপচাপ বেড়ে যাই।

১২. উচ্চ রক্তপচাপ হয় এমন রোগ ধরা পড়লে।

শিশুদের রক্তপচাপ মাপার পদ্ধতি:

১. কমপক্ষে ৫ মিনিট শান্তভাবে বসে থাকতে হবে।

২. চেয়ারে এমনভাবে বসাতে হবে যেন পিঠ, পা এবং ডান হাত ঠেস দিতে পারে।

৩. দান হাতে রক্তপচাপ মাপতে হবে।

৪. সঠিক সাইজের কাফ (Cuff)ব্যবহার করতে হবে যার ভিতরের Bladder এর প্রস্থ কমপক্ষে 40% off the Mid Upper Arm circumference হতে হবে এবং দীর্ঘ 80-100% off the Mid Upper Arm circumference হতে হবে।

শিশুদের উচ্চ রক্তপচাপ নির্ণয়ের পদ্ধতি:

১. প্রথমে বাচ্চার উচ্চতা কত এবং Centile চার্টের কোথায় অবস্থান করছে তা জানতে হবে।

২. সঠিকভাবে রক্তপচাপ মাপতে হবে।

৩. শিশুদের রক্তপচাপ চার্টে বয়স, লিঙ্গ এবং উচ্চতা অনুযায়ী মিলিয়ে নিতে হবে।

৪. যদি রক্তচাপ 95th Centile এরউপর হয়ে থাকে তবে তা নিশ্চিত হতে হবে।

৫. উচ্চ রক্তপচাপের কারন নির্ণয় করতে হবে।

শিশুদের উচ্চ রক্তপচাপ নির্ণয় না করলে কি ক্ষতি হতে পারে:

অনেকসময়ই শিশুদের উচ্চ রক্তচাপের না। তবে রক্তপচাপের মাত্রা অনেকদিন ধরে বেশি থাকলে কিংবা হঠাৎ করে বেশি হয়ে গেলে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যেমন Brain, Heart, Kidney-র ক্ষতি (Target Organ Damage) হতে পারে, এমনকি মৃত্যুঝুকি পর্যন্ত হতে পারে।

শিশুদের উচ্চ রক্তপচাপের লক্ষন:

১. কোন লক্ষণ নাও থাকতে পারে।

২. মাথা ব্যথা।

৩. চোখে ঝাপসা দেখা।

৪. খিচুনি।

৫. ঠিকমত বৃদ্বি না হওয়া।

৬. Palpitation হওয়া।

৭. কিডনি বিকল হয়ে যাওয়া।

৮. কাজে মনোযোগ না থাকা ।

করনীয়:

এবারের World Hypertension Day 2019 এর Theme হচ্ছে Know Your Numbers অর্থাৎ আপনার রক্তচাপের মাত্রা জানুন। শিশুদের ক্ষেত্রে এই কথাটি আরো গুরুত্বপূর্ণ। তাদের ক্ষেত্রে মাত্রা জানুন, পাশাপাশি জানুন কত মাত্রার বেশি হলে সেটা তার জন্য উচ্চ রক্তপচাপ এবং কত মাত্রার বেশি হলে সেটা তার জীবনের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

সুতরাং শিশুদের রক্তপচাপ মাপার ব্যাপারে আর অবহেলা নয়। Early Diagnosis,, Early Treatment , Early prevention is better than all sufferings.

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 





জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর