ডা. তাইফুর রহমান

ডা. তাইফুর রহমান

কনসালটেন্ট কার্ডিওলজি

জেনারেল হাসপাতাল, কুমিল্লা।


০৩ মে, ২০১৯ ০৬:০৭ পিএম

পরস্পরের শ্রদ্ধাশীলতায় সমাজ সুন্দর হয়

পরস্পরের শ্রদ্ধাশীলতায় সমাজ সুন্দর হয়

আজ ভোরে (২ মে) ধর্মসাগরের পাড় ধরে হাঁটলাম অনেকক্ষণ। এক পর্যায়ে ক্লান্ত শরীরে দক্ষিণ পাড়ে এসে থামলাম। এখানে ভোরের স্বল্পকালীন বাজার বসে। লাইন ধরে ভ্যানে বোঝাই ডাব বিক্রি করছে বিক্রেতারা। পেছনে কলা বিক্রেতা। সেখানে কলা নিয়ে চলছে ত্রিমুখী লড়াই।  

স্ট্র দিয়ে ডাব খাচ্ছি আর কলা কেনা নিয়ে সৃষ্ট সামনের একটা জটিল কথা কাটাকাটি খেয়াল করছি।  

এক বয়স্ক ভদ্রলোক চার হালি কলা কিনলেন, তারমধ্যে তিনটা কলা জোড়। নিয়ম অনুযায়ী, ক্রেতা তিনটা জোড় কলাকে একটা ধরেছেন, মানে পাঁচ টাকা। মজার বিষয় হলো, ভদ্রলোকের স্ত্রী জোড় কলা কিনবেন না। এ কলা খেলে নাকি জোড় বাচ্চা হয়! এখানেতো তিনটা একসঙ্গে। সুতরাং এটা আরো বেশি সমস্যা!

এদিকে আবার কলাওয়ালা কলার গোছাটা ফেরত নেবেন না। কারণ গোছা থেকে তিনি ইতিমধ্যে চারটা কলা আলাদা করে ফেলেছেন। তার দাবি, বিচ্ছিন্ন কলাগুলো কেউ সঠিক দাম দিয়ে কিনবে না।

আমি এগিয়ে গিয়ে বললাম—ভাই, আপনি এই কলাগুলো ফেরত নিয়ে অন্য কলা দিয়ে দিন, সমস্যা কোথায়?সে উত্তেজিত হয়ে বললো, আলাদা করা চারটা কলা কে কিনবে? দশ টাকা দিয়েও কেউ নিবে না। 

আমি সঙ্গে সঙ্গে দশ টাকা বের করে দিয়ে বললাম, দাও কলাগুলো। সে দিলো বটে, তবে চেহারাটা অন্ধকার হয়ে গেলো। তার সামনেই মুখে পুরে নিলাম কলা, আর তার বিষন্ন চেহারাটার দিকে নজর বুলালাম। 

পরে বুড়ি মাকে বললাম, আপনার কলাগুলোও দিয়ে দেন। আমার এক আত্মীয়ার বাচ্চা হয় না। …ইন্ডিয়া, সিঙ্গাপুর শেষ। যদি এই কলা খাওয়াইয়া তিনটা একসঙ্গে হয় মন্দ কি!

আমাদের সমস্যা হলো, শুধু নিজের কথার উপর অটল থাকতেই আমরা গোঁ ধরে থাকি। আর ক্ষতিগ্রস্ত হই কলাওয়ালার মতো।

সবাই সবার জায়গায় মূল্যবান। কাউকে ছোট করার দরকার নাই। ডাক্তারদের ক্রিকেটার হওয়ার দরকার নাই, আবার ক্রিকেটারদেরও ডাক্তার হওয়ার দরকার নাই। সব শ্রেণি-পেশার মানুষ নিয়েই আমাদের সমাজ, সমাজের সৌন্দর্য্য। সবাই সবার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হলেই সমাজটা সুন্দর হবে।

আসুন সবাই সবার জায়গায় সৎ হই। ইহকালে এবং পরকালে এটাই সবচেয়ে বেশি দরকারি।
 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে