০১ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:৩৩ পিএম

এইচএসসি পাস ‘চিকিৎসকের’ ৫ মাসের কারাদণ্ড

এইচএসসি পাস ‘চিকিৎসকের’ ৫ মাসের কারাদণ্ড

মেডিভয়েস রিপোর্ট: মাদারীপুরে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার অপরাধে অমিত কীর্ত্তনিয়া (৩৬) নামের এইচএসসি পাস এক চিকিৎসককে আটকের পর ৫ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাদারীপুর সদর উপজেলার পানিছত্র এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, এইচএসসি পাশের পর মেডিকেলে না পড়লেও তিনি রোগীর ব্যবস্থাপত্রে লেখেন ‘ডা. এ আর অমিত’। অথচ চিকিৎসা শাস্ত্রের কোন জ্ঞান নেই তার। নিজের পরিচয়ে লিখেন মাদারীপুর চক্ষু হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার।

রোববার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই হাসপাতালে অভিযান চালায় জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ ও ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে হাসপাতালের বাকিরা পালিয়ে গেলেও পালাতে পারেননি অমিত। এ সময় তাঁকে আটক করে ৫ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ফাতেমা জান্নাত বলেন, চিকিৎসা বিষয়ে অমিতের কোনো শিক্ষা নেই। তিনি প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে রোগীদের চিকিৎসা করছিলেন। আটক করার পরে আমরা তাঁকে সিভিল সার্জনের কার্যালয় নিই। পরে সিভিল সার্জনের উপস্থিতিতে অমিতকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ফরিদ হোসেন বলেন, একজন চক্ষু চিকিৎসকের যা অর্জন করা প্রয়োজন তার কিছুই জানা নেই অমিতের। তিনি প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে মাদারীপুর চক্ষু হাসপাতালে এত দিন চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। এখন ওই হাসপাতালটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি