১৭ অগাস্ট, ২০১৬ ০৫:০৫ পিএম

সুপার স্পেশালাইসড হাসপাতাল নির্মাণের উদ্বোধন বৃহস্পতিবার

  • সুপার স্পেশালাইসড হাসপাতাল নির্মাণের উদ্বোধন বৃহস্পতিবার
  • সুপার স্পেশালাইসড হাসপাতাল নির্মাণের উদ্বোধন বৃহস্পতিবার

মেডিভয়েস ডেস্ক: দেশের প্রথম সেন্টার বেইজড ১০০০ শয্যার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) সুপার স্পেশালাইসড হাসপাতাল নির্মাণ ও কনসালটেন্সি কার্যক্রম অবশেষে শুরু হচ্ছে।

কোরিয়ান ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফান্ডের (ইডিসিএফ) সহায়তায় রাজধানীর রুপসী বাংলা হোটেলের বিপরীতে বিএসএমএমইউ’র নিজস্ব ৩ দশমিক ৮ একর জমিতে প্রায় ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা ব্যয়ে বিশেষায়িত এ হাসপাতাল নির্মিত হবে।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের মিল্টন হলে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন।

বিএসএমএমইউ ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান মঙ্গলবার বিকেলে জানান, এটি দেশের প্রথম সেন্টার বেইজড  হাসপাতাল। অত্যাধুনিক এই হাসপাতালে মোট ছয়টি সেন্টার থাকবে। সেন্টারগুলো হলো- কার্ডিওভাসকুলার, কিডনি অ্যান্ড ইউরোলজি, হেপাটোবিলিয়ারি অ্যান্ড অ্যান্ডোক্রাইনোলজি, এক্সিডেন্টাল ইর্মাজেন্সি, মাদার অ্যান্ড চাইল্ড কেয়ার ও অনকোলজি।

হাসপাতালটি নির্মিত হলে এসব সেন্টারে সংশ্লিষ্ট রোগের যাবতীয় চিকিৎসা পাওয়া সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জাগো নিউজকে জানান, অত্যন্ত সহজ শর্তে শতকরা মাত্র শূন্য দশমিক ৪০ শতাংশ সুদে ৪০ বছরের মধ্যে এ ঋণ পরিশোধ করতে হবে। 

প্রথম ১৫ বছর ঋণের কোনো টাকা পরিশোধ করতে হবে না। পরবর্তী ২৫ বছরে এ ঋণ পরিশোধ করতে হবে।

জানা গেছে, গত ২ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একনেকে বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল নামের এ  প্রকল্পটির অনুমোদন দেন। এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৩৬৬.৩৩৭২ কোটি টাকা। এর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন ফান্ড থেকে সহজ শর্তে ১০৪৭.৩৩৮৪ কোটি টাকা ঋণ সুবিধা পাওয়া যাবে। ইতোমধ্যে কোরিয়ান পরামর্শক নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে। 

বিএসএমএমইউ ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খানের সভাপতিত্বে আগামীকালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন প্লানিং কমিশনের সদস্য মো. আব্দুল মান্নান ও বাংলাদেশস্থ দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত জনান আন সং-ডু।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি