ডা. ফাহমিদা শিরীন নীলা

ডা. ফাহমিদা শিরীন নীলা

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী)

ফিগো ফেলো (ইতালি)

গাইনী কনসালট্যান্ট, বগুড়া।


২৬ মার্চ, ২০১৯ ১১:৩৬ এএম

ডাক্তারের ঘুম

ডাক্তারের ঘুম

ছুটি তো আমার নাই। রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠতেই মনে হয়, ইস্ অফিসটা যদি না থাকতো! একটু আয়েশ করে ঘুমাতাম! রাজ্যের ঘুম এসে ভীড় করে চোখে। যদি কোন রকমে বছরে একটা দু'টা নির্ভেজাল ছুটি পাই, সেদিনও রোজকার মতো ঘুম ভেঙে যায় ভোর পাঁচটায়। কিন্তু সমস্যা হল, অন্যান্য ওয়ার্কিং ডের মতো সেদিন আর ঘুম আসেনা। মনে পড়ে, স্টুডেন্ট লাইফের কথা। পরীক্ষা শেষ হলেই আরাম করে ঘুমাবো ভাবলেও যেদিন পরীক্ষা শেষ হতো, সেদিন চোখের ঢুলুঢুলু ভাবও গায়েব হয়ে যেতো।

মাঝে দুটো দিন ছুটি নিয়ে বাপের বাড়ি গেলাম। একদিন অফিস শেষ করে রওনা দিয়ে মাঝে একদিন পুরোটা থেকে পরের দিন দুপুরে রওনা দিয়ে আসলাম। মাঝের দিনটা ভাতঘুম দিব ঠিক করে রেখেছি। ভাত খেয়ে বিছানায় শুয়ে যেই না চোখটা বন্ধ করেছি, অমনি মোবাইল বেজে উঠল। দিলাম কেটে। বাজতেই থাকল। দিলাম রিংটোন বন্ধ করে। তারপর ভাবলাম,থাক দেখি ক্লিনিক থেকে কেন ফোন করেছে? কোন ঝামেলা নাতো!

-হ্যালো, ম্যাডাম রোগী এসেছে একটা জয়পুরহাট থেকে।

-আমি তো রাজশাহী। 

-তা তো জানি ম্যাডাম। কিন্তু রোগী দূর থেকে আসছে তো! 

-যেখান থেকেই আসুক। আমি তো রাজশাহী। 

-মেলা দূর থাকে আসছে তো ম্যাডাম! মেলা দূর বাড়ী। জানতো না যে,আপনি নাই।

-যাই হোক না কেন? আমি তো রাজশাহীতে বাপ।

-সেটা তো বুঝছি ম্যাডাম। কিন্তু রোগীর বাড়ী দূরে তো! আর ফোন দিয়ে আসেনি। নালে তো আমরা মানাই করতাম!

-তো! তো আমি কি করব? হেলিকপ্টার ভাড়া করে নিয়ে এসে দেখে যাব দূরের রোগী?

-ওওহ। আচ্ছা রাখি ম্যাডাম।

আহারে আমার ভাত ঘুম। দূরের রোগীর পাল্লায় পড়ে পালাতে দিশা পেল না।

আজ ছুটির দিন। আজ আরাম করে ঘুমাবো। গত ক'দিন আমার যে ধকল গেছে, ঘুমটা বড় দরকার ছিল। কিন্তু ভোররাতে ঘুমটা একবার ভেঙে কোথায় যে পালিয়ে গেল! হঠাৎ মনে পড়ল, ছুটি হলেই কি! আজ না আমার ফ্রি ক্যাম্পে যেতে হবে। যেই না ভাবা,অমনি ঘুম বাবাজী পড়িমরি করে ছুটে এসে চোখ জুড়ে বসল।

ইস্! কি হয়,একটা অলস দিন পেলে? মানুষগুলো এমন কেন? ডাক্তারদের ছুটি এরা দুই চক্ষে দেখতে পারেনা। আমি ঘুমাতে চাই। একটা দিন। আরামে আয়েশে আলস্যে....

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না