ডা. তাইফুর রহমান

ডা. তাইফুর রহমান

কনসালটেন্ট কার্ডিওলজি

জেনারেল হাসপাতাল, কুমিল্লা।


২৫ মার্চ, ২০১৯ ১১:৩৪ এএম

প্রেসার সমাচার

প্রেসার সমাচার

স্যার, আমার প্রেসার। আমি যতই বলি আপনার সমস্যা বলুন, তার একটাই উত্তর, স্যার আমার প্রেসার।

: আপনার প্রেসার কোথায়?
: হার্টে।

আমি আবারও জিজ্ঞেস করি অসুবিধা কি বলুন!
: স্যার আমার শরীর খুব খারাপ, হার্টে প্রেসার। লো প্রেসার। দূর্বল দূর্বল লাগে, ঘার ব্যথা লাগে, কাজ- কর্ম করতে ইচ্ছা করেনা।

: আগে ডাক্তার দেখাইছেন?
: না, ঔষধের দোকানের ডাক্তর সাব মেপে বললো লো প্রেসার। দিনে দুইটা ডিম খাই। এক গ্লাস দুধ খাই। মাঝে মাঝে বেশি কইমা গেলে স্যালাইন খাই।

: আপনি বুঝেন কিভাবে?
: শরীর দূর্বল লাগলেই বুঝি পেসার কইমা গেছে।

আমি তার প্রেসার মাপি, প্রেসার ১০০/৭০ মিমি মার্কারি। এটাকে লো প্রেসার বলেনা। প্রেসার ৯০/৬০ এর কম হলে লো প্রেসার। তাও কোন লক্ষন দেখা গেলে তবেই চিন্তা করার বিষয়।

প্রেসার দরকার কেন?

সাত তলার ছাদে পানি তুলতে হলে ভাল পাম্প লাগাতে হয় যাতে ভাল প্রেসারে পানি তুলতে পারে। কম প্রেসারে পানি উপরে উঠে না। তেমনি মানুষের প্রেসার কমে গেলে ব্রেইন পর্যাপ্ত রক্ত পায় না। মাথা ঝিমঝিম করে, সার্বিক দুর্বলতা দেখা দেয়, কখনো অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে। কিডনির ছাঁকনিতে প্রয়োজনীয় প্রেসারের অভাবে প্রস্রাব তৈরী হয় না। কিডনি নষ্ট পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে।

প্রেসার বেশি হলে অনেক সময় পাইপ ফেটে যেতে পারে। পানির ট্যাংকি ফেটে যেতে পারে, পাম্প নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তেমনিভাবে মানুষের ব্লাড প্রেসার বেড়ে গেলে হার্ট ফেইলিউর হতে পারে, রক্ত নালী ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে, ক্ষতিগ্রস্ত রক্তনালীতে চর্বি জমে হার্ট ব্লক, হার্ট এটাক, ব্রেইন স্ট্রোক হতে পারে। কখনো ব্রেইনের রক্তনালী ছিড়ে রক্তক্ষরণ হতে পারে।

আসুন দেখি লো প্রেসার কেন হতে পারে:

১. ডিহাইড্রেশন: ডাইরিয়া, অতিরিক্ত বমি, রক্তক্ষরণ।

২. হার্ট ডিজিজ: হার্টের ভালভ নষ্ট হয়ে গেলে, হার্ট এটাক হলে, হার্ট ফেইলিউর হলে।

৩. হরমোন সমস্যা: প্যারাথাইরয়েড সমস্যা, এড্রেনাল সমস্যা।

৪. ইনফেকশন: সেপটিসেমিয়া হলে রক্তনালীর টোন কমে যায়।

৫. এলার্জিক রিয়েকশান: এনাফাইলেকটিক শক।

চিকিৎসা:

হাইপোটেনশন বা লো ব্লাড প্রেসারে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। তাই দ্রুত হসপিটালাইজ করতে হবে। চিকিৎসা হবে কারন অনুযায়ী।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত