০৩ মার্চ, ২০১৯ ০৭:১১ পিএম

গত বছর ক্যান্সারে ১ লাখ ৮ হাজার ১৩৭ জনের মৃত্যু

গত বছর ক্যান্সারে ১ লাখ ৮ হাজার ১৩৭ জনের মৃত্যু

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সারের (আইএআরসি) প্রতিবেদন অনুযায়ী গত বছর বাংলাদেশে ক্যান্সার আক্রান্ত ১ লাখ ৫০ হাজার ৭৮১ জন রোগীর মধ্যে ১ লাখ ৮ হাজার ১৩৭ জন মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক রোববার সংসদ অধিবেশনে টেবিলে উত্থাপিত এম আবদুল লতিফের এক প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তামাক, দূষণ ও অনিরাপদ খাদ্যাভ্যাসের কারণে দেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা বাড়লেও গ্লোবাল অ্যাডাল্ট টোবাকো সার্ভের (জিএটিএস) ২০০৯ এবং জিএটিএস ২০১৭-এর তুলনামূলক তথ্য চিত্রে দেখা যায়, তামাকের ব্যবহার কমার কারণে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যাও হ্রাস পাচ্ছে। এসব প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে তামাক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৪৩.৩ শতাংশ, ২০১৭ সালে এ সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩৫.৩ শতাংশে।

মন্ত্রী বলেন, তামাকের বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে সরকার এরই মধ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। এর মধ্যে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০০৫ (২০১৩ সালে সংশোধিত) এবং ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা ২০১৫-এর আওতায় পাবলিক প্লেস ও গণপরিবহনে সাধারণ মানুষকে ধূমপান থেকে বিরত রাখতে বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় নোটিশ প্রদর্শন করা হচ্ছে। এছাড়া সিনেমা হল ও টেলিভিশনে সিনেমা প্রদর্শনের আগে ও পরে প্রদর্শন করা হচ্ছে এ সংক্রান্ত বার্তা।

আরেক সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, দেশের গ্রামাঞ্চলে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতির গ্রহণকারী মানুষের সংখ্যা বেড়েছে। স্বাধীনতা উত্তরকালে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি ব্যবহারকারীর হার ছিল মাত্র ৭.৭ শতাংশ। ২০০৯ সালে এ সংখ্যা ছিল ৫৫.৮ এবং বর্তমানে তা বেড়ে ৬২.২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

করোনা ও বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা

এক দিনে চিরবিদায় পাঁচ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

এক বছর প্রয়োগ হবে সেনা সদস্যদের দেহে

চীনে করোনার প্রথম ভ্যাকসিন অনুমোদন

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি