১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০১:২০ পিএম

বইমেলায় জনপ্রিয় চিকিৎসক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহর বই

বইমেলায় জনপ্রিয় চিকিৎসক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহর বই

মেডিভয়েস রিপোর্ট: এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়েছে দেশবরেণ্য চিকিৎসক ও বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও ডিন অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহর স্বাস্থ্য বিষয়ক বই "সুস্থ শরীর, সতেজ মন, সুন্দর জীবন"। বাংলা ভাষায় লিখিত এটি তার দ্বিতীয় বই।

এর আগে ইংরেজি ভাষায় প্রখ্যাত এ চিকিৎসকের লেখা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে, যা মেডিকেল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কাছে বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

অনন্যা প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত নতুন বইটি এই দেশবরেন্য চিকিৎসকের প্রথম বই "স্বাস্থ্য বিষয়ক নির্বাচিত কলাম"— এর ধারাবাহিকতায় প্রকাশিত।   ৫৭টি প্রবন্ধে বইটিতে সাধারণ জ্বর, পেটা ব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্য, বুকে ব্যথা, ম্যালেরিয়াসহ বিভিন্ন ঋতুভিত্তিক স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান যেমন সন্নিবেশিত হয়েছে, তেমনি হৃদরোগ, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে রোগী নিজের জীবনযাত্রার কী কী উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন প্রয়োজন তাও লেখকের লেখনীতে উঠে এসেছে। 

পাশাপাশি মশার প্রকোপে চিকুনগুনিয়া বা ডেঙ্গু জ্বরের মত জনস্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত বিষয়গুলিতে ডাক্তারদের পাশাপাশি সাধারণ নাগরিক এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কী কী কর্তব্য সে বিষয়ে তিনি সাবলীলভাবে তুলে ধরেছেন।

যা সামগ্রিকভাবে পরিস্থিতি মোকাবেলায় কিংবা রোগ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে, সেসব বিষয়ে রয়েছে পরিষ্কার দিকনির্দেশনা।  

এছাড়া  রোগী-চিকিৎসক সম্পর্ক, রোগী-সাংবাদিক সম্পর্ক, ডাক্তারদের প্রতি রোগীদের অভিযোগ ইত্যাদি সংবেদনশীল অথচ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে সার্বিক পরিস্থিতির বিচারে এই বিজ্ঞ ও রোগীবান্ধব চিকিৎসকের নিজস্ব মতামত প্রকাশিত হয়েছে। 

অধিকন্তু, স্বাস্থ্যব্যবস্থার উল্লেখযোগ্য কিছু পদক্ষেপের সন্নিবেশন যেমন সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা, স্বাস্থ্যবীমা, কিংবা চিকিৎসা ব্যয় কমানোর  মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর প্রচলন, কিভাবে স্বাস্থ্যখাতকে আরো উন্নতির দিকে নিয়ে যেতে পারে, সেসব বিষয়ে তার প্রস্তাবনাগুলো বাতলে দিতে পারে অনেক জটিল সমস্যা সমাধানের পথ। 

প্রবন্ধগুলো তাই যে কেবল আপামর পাঠকদের কাজে আসবে তাই নয়, এগুলো পড়া উচিত নীতি নির্ধারক ও কর্তা ব্যক্তিদেরও, যারা জনস্বাস্থ্য নিয়ে নানা দিকনির্দেশনা দিয়ে থাকেন। পাশাপাশি বয়স্কদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং বৃদ্ধাশ্রম নিয়ে লেখাগুলো  সহজেই পাঠকগণের  হৃদয়স্পর্শী করবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।  

বই প্রকাশের বিষয়ে ডা. এবিএম আবদুল্লাহ মেডিভয়েসকে বলেন, বইটা লিখে খুবই ভালো লাগছে, কেননা ডাক্তারদের মধ্যে সাহিত্য চর্চাটা কমে গেছে। আমার এই বইটার মাধ্যমে যদি সাধারন মানুষের কোন উপকারে হয় বা ছাত্রছাত্রীরা কিছু শিখতে পারে, সেটাই হবে আমার সবথেকে বেশি ভাললাগা।

বইটি অনন্যা প্রকাশনীর ১ নাম্বার প্যাভিলিয়নে পাওয়া যাচ্ছে।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত