১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৮:০৫ পিএম

দুধ-দই পরীক্ষার নির্দেশ হাইকোর্টের

দুধ-দই পরীক্ষার নির্দেশ হাইকোর্টের

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দুধ ও দইয়ে ভেজালে উদ্বেগ প্রকাশ করে তা পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলেছে আদালত। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের বেঞ্চ সোমবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেয়।

এই সময় আদালত বলেছে, খাদ্যে ভেজাল মেশানো একটি গুরুতর অপরাধ। বিচারক বলেছেন, মানুষ শুধু টাকার পেছনে ঘুরছে। দেশ ও দেশের মানুষ নিয়ে কেউ ভাবছে না। স্বাস্থ্যই যদি ঠিক না থাকে, তাহলে এত টাকা-পয়সা দিয়ে হবেটা কী?

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) আর্থিক সহায়তায় সম্প্রতি জাতীয় নিরাপদ খাদ্য গবেষণাগার (এনএফএসএল) গরুর দুধ ও দই নিয়ে একটি জরিপ চালায়।  ফলাফলে গরুর দুধ ও দইয়ে সহনীয় মাত্রার চেয়ে বেশি কীটনাশক ও নানা ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান পায় এনএফএসএল। সেই সঙ্গে প্যাকেটজাত দুধ ও দইয়েও পায় মাত্রাতিরিক্ত সীসা।

সংবাদপত্রে এই প্রতিবেদন দেখার পর হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এসব পরীক্ষার আদেশ দেয়।

আদেশে স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত ও বাজারে প্যাকেটজাত দুধ, দই ও গো খাদ্যে ব্যাকটেরিয়া, কীটনাশক, অ্যান্টিবায়োটিক, সীসা, রাসায়নিকের মাত্রা নিরূপণে বাজার থেকে নমুনা সংগ্রহ করে জরিপ চালাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই), নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও কেন্দ্রীয় নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনা সমন্বয় কমিটিকে এই জরিপ চালিয়ে ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে হবে আদালতে।

নিরাপদ দুধ, দই ও গো খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করতে ও ভেজাল প্রতিরোধে বিবাদীদের ব্যর্থতা ও নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, সেই রুলও দিয়েছে আদালত।

পাশাপাশি দুধ-দই ও গো খাদ্যে ভেজাল মেশানোর সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়ার নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়।

খাদ্য সচিব, স্বাস্থ্য সচিব, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব, কৃষি সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ, কেন্দ্রীয় নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনা সমন্বয় কমিটি, দুর্নীতি দমন কমিশন ও বিএসটিআই চেয়ারম্যানকে চার সপ্তাহের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত