ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬,    আপডেট ১০ মিনিট আগে
০৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০২:১২

স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বসেরা ডা. মাহাথিরের দেশ

স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বসেরা ডা. মাহাথিরের দেশ

মেডিভয়েস ডেস্ক: বিশ্বে স্বাস্থ্যসেবায় সেরা তালিকায় শীর্ষ দেশের জায়গা করে নিয়েছে ডা. মাহাথির মোহাম্মদের দেশ মালয়েশিয়া। ১০০ স্কোরের মধ্যে মালয়েশিয়া পেয়েছে ৯৫। বিশ্বে অনুমোদন পাওয়া ১৩টি হাসপাতাল আছে দেশটিতে।

ফ্রান্সের একটি কোম্পানি ন্যাতিক্সিসর প্রকাশ করা অবসর নীতি সম্পর্কিত গ্লোবাল রিটায়ারমেন্ট ইনডেক্সের বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে আয়ারল্যান্ডভিত্তিক ম্যাগাজিন ইন্টারন্যাশনাল লিভিং

গ্লোবাল রিটায়ারমেন্ট ইনডেক্সর বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্যসেবার মান পরিমাপ করা খুবই কঠিন এবং এর ওপর নম্বর দেওয়া আরও কঠিন। চিকিৎসা খরচের ভিত্তিতে নাম্বারিং করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে ম্যাগাজিনটি জানায়, সম্ভাব্য ১০০ পয়েন্টের মধ্যে ৯৫ পেয়েছে মালয়েশিয়া। এ পয়েন্ট অর্জনের মধ্য দিয়ে অ্যানুয়াল গ্লোবাল রিটায়ারমেন্ট ইনডেক্সর স্বাস্থ্যসেবা ক্যাটাগরির শীর্ষস্থান দখল করেছে মাহাথির মোহাম্মদের দেশ। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় অবস্থিত মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্যসেবা বিশ্বমানের ও অত্যাধুনিক। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক হেলথ কেয়ার কোম্পানি দ্য জয়েন্ট কমিশন ইন্টারন্যাশনাল’–এর (জেসিআই) অনুমোদন পাওয়া ১৩টি হাসপাতাল আছে দেশটিতে।

ম্যাগাজিনটির প্রতিবেদনে মালয়েশিয়ার চিকিৎসকদের সম্পর্কে বলা হয়েছে, তাঁরা বেশির ভাগই ইংরেজিতে দক্ষ। প্রকৃত অর্থে তাঁরা যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র বা অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। কাজেই দেশটি উন্নত চিকিৎসা প্রত্যাশীদের গন্তব্যস্থল হওয়া মোটেও আশ্চর্যজনক নয়। দেশটিতে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শের জন্য আগে থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। দেশটিতে প্রেসক্রিপশন খরচও কম। দেশটির ফার্মেসির কর্মীরা উন্নত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। আর তাঁরা এত বন্ধুসুলভ যে সবাইকে সহজেই কাজের মাধ্যমে মুগ্ধ করে ফেলেন।

স্বাস্থ্যসেবায় বিশ্বের সেরা ৬ দেশ

গত ২২ জানুয়ারি ম্যাগাজিনটিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বে স্বাস্থ্যসেবায় সেরা ছয়টি দেশের তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করছে মালয়েশিয়া। এই তালিকায় দ্বিতীয় ফ্রান্স, তৃতীয় থাইল্যান্ড, চতুর্থ ইকুয়েডর, যৌথভাবে পঞ্চম স্থানে আছে মেক্সিকো ও কোস্টারিকা।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত