০১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৩:৫০ পিএম

চিকিৎসকের আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগ স্বীকার স্ত্রীর

চিকিৎসকের আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগ স্বীকার স্ত্রীর

মেডিভয়েস রিপোর্ট: চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগ স্বীকার করেছেন স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতু।  প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কিছু অভিযোগ স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছেন নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) মিজানুর রহমান।

দুপুরে চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।  

মিজানুর রহমান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি স্বামীর অভিযোগের কিছু বিষয় স্বীকার করেছেন।  তবে আরও কিছু বিষয় এড়িয়ে গেছেন তিনি।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, ২০১৬ সালে আকাশ ও মিতুর বিয়ে হয়।  পরে মিতু যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান।  এর মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়।  গত ১৩ জানুয়ারি মিতু বাংলাদেশে আসার পর ঝগড়া-বিবাদ আরও বেড়ে যায়।  আত্মহত্যার আগে বুধবার দিবাগত রাতে আকাশের সঙ্গে তার স্ত্রী মিতুর কথা-কাটাকাটি হয়।  এরপর রাত চারটার দিকে মিতু তার বাবার বাড়িতে চলে যান।  পরে আকাশ তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে বিয়েবহির্ভূত সম্পর্কের একাধিক অভিযোগ এনে নিজের ফেসবুকে পোস্ট দেন।

সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে মিজানুর রহমান বলেন, ডা. আকাশের আত্মহত্যায় তার স্ত্রী মিতুর কোনো বন্ধু বা স্বজন যদি প্ররোচনা দিয়ে থাকেন, তাহলে তদন্তসাপেক্ষে তাদেরও আটক করা হবে।

এর আগে মিতুকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে সকাল ১১টায় দামপাড়া পুলিশ লাইন্সে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মো. মিজানুর রহমান জানান, চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আকাশের পরিবার চান্দগাঁও থানায় এ মামলা দায়ের করবেন।  তবে পরিবার মামলা না করলে আকাশের দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসের ‘ডায়িং ডিক্লারেশন’ অনুযায়ী, আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, মোস্তফা মোরশেদ আকাশের ব্যবহৃত মুঠোফোনটি পুলিশ জব্দ করেছে বলে জানা গেছে।

আকাশ তার ফেসবুকে স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুর বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ ও বিভিন্ন ছবি সম্বলিত যে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন সেটি শুক্রবার ভোর থেকে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মিজানুর রহমান বলেন, এটি তাদের তদন্তের বিষয়।  ডিলিট হলেও সেই স্ট্যাটাস রিকোভার করা সম্ভব।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) রাতে নগরের নন্দনকানন এলাকায় তানজিলা হক চৌধুরী মিতুকে তার খালাতো ভাইয়ের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

গ্রেপ্তারের পর তানজিলা হক চৌধুরী মিতুর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, আমানত শাহ (র.) মাজার এলাকা থেকে তার ব্যবহৃত মুঠোফোনটি জব্দ করা হয়।  বৃহস্পতিবার ভোরে নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকায় নিজবাসায় নিজের শিরায় বিষ প্রয়োগ করে আত্মহত্যা করেন আকাশ।  এর আগে ফেসবুকে দুটি স্ট্যাটাসে তিনি তার মৃত্যুর জন্য স্ত্রী মিতুকে দায়ী করেন।  

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কৈফিয়তনামা

ভুল কাজ করে, ভুল কথা বলে সরকারকে বিব্রত করবেন না

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কৈফিয়তনামা

ভুল কাজ করে, ভুল কথা বলে সরকারকে বিব্রত করবেন না

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি