ডা. শিরীন সাবিহা তন্বী

ডা. শিরীন সাবিহা তন্বী

মেডিকেল অফিসার, রেডিওলোজি এন্ড ইমেজিং ডিপার্টমেন্ট,

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বরিশাল।


২৭ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৪:২১ পিএম

উপজেলায় ইন্টার্নশিপে নারী ডাক্তারদের নিরাপত্তা কে দেবে?

উপজেলায় ইন্টার্নশিপে নারী ডাক্তারদের নিরাপত্তা কে দেবে?

ইন্টার্নশিপ দু বছর হতেই পারে। এক বছর নিজ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আর এক বছর উপজেলাতে। কিন্তু পুরো ব্যাচে অর্ধেকের ও বেশি সংখ্যক নারী চিকিৎসক দের নিরাপত্তা কে দেবে?

দেশ তো এটাই। নিজের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইয়ারমেট, নিজের শিক্ষকগন, প্রশাসন পরিবেষ্টিত হয়েও রোগীর এডেন্টডেন্ট দ্বারা নারী ইন্টার্নরা ইভটিজিং এর শিকার হয়। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সামান্য এক একজন কর্মচারী ও উর্দি পরে এসে নারী ইন্টার্ন দের সাথে চরম অশালীন আচরণ করেছে। এ তো সেদিনের ইভেন্ট।

আর দালালের ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে টেষ্ট না পাঠানোর অপরাধে যে উপজেলাতে সদ্য জয়েন করা নারী ডাক্তার কে কাপড় খুলে নেওয়ার হুমকি দিছিলো। অথবা ঐ সাংবাদিক এবং লোকাল পাতি নেতাগন?যারা সেই নারী কর্মকর্তার সাথে অকারণে শত্রুতা করে সাজানো নাটকের মাধ্যমে তার চরিত্র হননেন চেষ্টা করেছিল।

প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা, ক্যাডার না হয় নাই বললাম- যাতায়াত বা কোন ক্যাডার ফেসিলিটি ডাক্তার রা পাচ্ছে না বলে। তাকেই যদি এত অরক্ষিত হয়ে দিন রাত উপজেলাতে হেনস্থা হতে হয় সেখানে সদ্য পাস করা নারী ইন্টার্ন? আমরা যারা বিভিন্ন সময়ে উদ্ভুত সমস্যা ডিল করে আসছি তারা জানি কি ভয়ংকর এক একটা ইভেন্ট হঠাৎ ঘটে যেতে পারে। ভিলেজ পলিটিক্স এর নোংরা শিকার হওয়া ছাড়া আর কিছুই ঘটবে না নারী ডাক্তারদের ভাগ্যে।

এত এত নেগেটিভ কথা কেন বলছি অন্যরা না বুঝলেও প্রতিটি নারী চিকিৎসক বুঝবেন ভীড়ের বাস কিংবা ট্রলারে উপজেলাতে চাকরি করার সময় তাদের অভিজ্ঞতা মনে করে।

আমার উপজেলা চাকরির পুরো সময় টাতে হাজব্যান্ড এর পরিচয় অজানাই ছিল অনেকের। অতঃপর উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র চোর এল। সব ঔষধ চুরি করে নিয়ে গেলো। উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কারো হেল্প পাচ্ছিলাম না। অবশেষে স্বসস্ত্র বাহিনীর কর্মকর্তার বৌ জেনে সকলে নড়েচড়ে বসলেন। পুরো সময়টা নিজের মেয়ের মতোই খোঁজ রেখেছেন কয়েকজন শিক্ষক। এ কারনেই কর্তব্য পালন করতে পেরেছিলাম হয়ত।

শেষ রোগীটা দেখতে দেখতে শেষ বাস টাও মিস করা, হঠাৎ কালবৈশাখী, ঝুম বৃষ্টি, থৈ থৈ নদী, ইভটিজিং অথবা হাতল ভাঙা চেয়ার, জানালা ভাঙা শ্বাপদসংকুল ডরমেটরী সব ই জীবনের অংশ হবে। শুধু সাপোর্ট দেয়ার কেউ থাকবে না। 

ঐ অনুভূতি টা ভীষন অসহায়ত্বের। মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন দের শতভাগ নিরাপত্তা, সুন্দর কর্ম পরিবেশ আমরা আজ ও নিশ্চিত করতে পারিনি। আর অরক্ষিত উপজেলাতে? আমার তো চিন্তা করতেই দম বন্ধ হয়ে আসতেছে।

আরও পড়ুন:

বেসরকারি মেডিকেল কলেজের প্রতি আরো নজর দেয়া প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিটি বিভাগে আরো বড় মাপের হাসপাতাল গড়ে তোলা হবে

রিজেন্ট ও জেকেজির প্রতারণার বিষয়ে ব্যাখ্যা

‘মহতী উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করতে গিয়ে প্রতারিত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর’

কঠোর পদক্ষেপের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির অবনতি: একদিনে সর্বোচ্চ ২,২৮,১০২ আক্রান্ত

রিজেন্ট ও জেকেজির প্রতারণার বিষয়ে ব্যাখ্যা

‘মহতী উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করতে গিয়ে প্রতারিত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর’

কঠোর পদক্ষেপের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির অবনতি: একদিনে সর্বোচ্চ ২,২৮,১০২ আক্রান্ত

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না