ঢাকা      রবিবার ২০, জানুয়ারী ২০১৯ - ৭, মাঘ, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. মুহম্মদ মুকিত ওসমান চৌধুরী

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), সাবেক-সহকারী রেজিষ্ট্রার (নাক-কান-গলা) চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল চট্টগ্রাম


কয়েন

একদিন এক শিক্ষক তাঁর ছাত্রকে নিয়ে গ্রামের মেঠোপথ ধরে হাঁটছিলেন। তাঁর উদ্দেশ্য ছিল এভাবে হেঁটে হেঁটে ছাত্রের মনে কৌতূহল জন্মানো, জ্ঞানের তৃষ্ণা জাগিয়ে তোলা।

হাঁটতে হাঁটতে তারা এক ক্ষেতের পাশে এসে পড়লেন। ক্ষেতের পাশে এক জোড়া জুতো পড়ে আছে দেখে ছাত্রটি তার শিক্ষককে বলল,"এগুলো নিশ্চয়ই এই ক্ষেতের যে খামারী, তার জুতো। এগুলো লুকিয়ে রাখলে কাজ সেরে ঘরে ফেরার সময় খামারী কি জব্দটাই না হবে, খুব মজা হবে, হাহাহাহ..."

ছাত্রের মুখে এই কথা শুনে শিক্ষক কিছুটা কষ্ট পেলেও সামলে নিয়ে বললেন,"দেখ বাবা, এই নির্মম রসিকতাটা না করে আমরা বরং এক কাজ করি চল, এক পাটিতে দশটি করে দু'পাটিতে বিশটি পাঁচ টাকার কয়েন রাখি। গুনে গুনে রাখতে রাখতে গিয়ে তোমার পাঁচের নামতা শেখা এবং এক থেকে একশ গোণা হয়ে যাবে। খামারীর উপকার করাও হবে..."

তারপর দু'জনে গুনে গুনে খামারীর জুতোর ভেতর পয়সা লুকিয়ে রেখে দূরে সরে গিয়ে এক বটের ধারে বসলেন। বটের নীচে বসে বসে শিক্ষক ছাত্রটিকে নানা জ্ঞানের কথা সরল গল্পের ছলে বলতে লাগলেন।

বিকেলে কাজ সেরে খামারী জুতো পায়ে দিতে গিয়ে কয়েনগুলো পেল। খুবই অবাক হল। তারপর তার চোখ থেকে পানি পড়তে লাগল। দূর থেকে ছাত্রটি আর তার শিক্ষক দেখল খামারী দু'হাত তুলে প্রার্থনা করছে। খামারী প্রার্থনায় বলতে লাগল, "হে অসীম দয়াবান, তোমার যে বান্দার মাধ্যমে আমার হাতে এতগুলো টাকা তুলে দিলে তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। আমার আজকের খাবার কেনার টাকা ছিল না, আমার স্ত্রীর জন্য ওষুধ কেনার টাকা ছিল না। আমার হাতে আজকের দিনের খাবার ও ওষুধটুকু কেনার টাকা এনে দিলে। যে ব্যক্তি এই দান করেছেন তা শত সহস্রগুণ বৃদ্ধি করর তাঁকে ফিরিয়ে দাও..."

এই বলে খামারী নিজের বাড়ির পথে যাত্রা করল। শিক্ষক তাঁর ছাত্রটিকে বললেন,"কোন কাজটিতে আনন্দ বেশী হল? জুতো লুকিয়ে কষ্টে ফেলে দিতে ভালো লাগত না কি এখন ভালো লাগল?"

অশ্রুসিক্ত চোখে ছাত্রটি বলল,"আজ আমি অনেক বড় একটা জিনিষ শিখলাম। নিশ্চয়ই নি:স্বার্থভাবে দেওয়ার আনন্দ, পরিহাসের জন্য ছিনিয়ে নেওয়ার আনন্দের চেয়ে বড়।"

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


পাঠক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

চার বছর বয়সেই ডিপ্রেশনে আক্রান্ত!

চার বছর বয়সেই ডিপ্রেশনে আক্রান্ত!

ইশরাত জাহান, বয়স বর্তমানে ১৫। তার মা-বাবা থেকে জানা গেল যখন তার…

সরকারী স্বাস্থ্য সেবা এখন জনগণের দোরগোড়ায়

সরকারী স্বাস্থ্য সেবা এখন জনগণের দোরগোড়ায়

আমাদের দেশের জনগনের বড় অংশ বসবাস করেন গ্রামে। সুতরাং গ্রামের মানুষের কথা…

অপারেশনের আগে রোগীর প্রস্তুতি

অপারেশনের আগে রোগীর প্রস্তুতি

অপারেশন লাগবে শুনলে সবারই ভয় বা দুশ্চিন্তা লাগে। কেউই সহজে অপারেশন করতে…

একজন মোকছেদ ভাই ও আমাদের ব্যর্থতা

একজন মোকছেদ ভাই ও আমাদের ব্যর্থতা

২০০১ সাল, ৫৫/১ আরামবাগ- "ঐ পাগলা! উঠ, দশটা বাজে। আর কত্তো ঘুমাবি?" …

গ্যাসের সমস্যা নিয়ে নানা জটিলতা

গ্যাসের সমস্যা নিয়ে নানা জটিলতা

চাচার বয়স পঞ্চাশের মত। সকাল থেকেই বুকে একটু ব্যাথা ছিল, আর বুক…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর