১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:৫৯ এএম

হবু চিকিৎসকের পাশে দাড়ালেন চিকিৎসকরা

হবু চিকিৎসকের পাশে দাড়ালেন চিকিৎসকরা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: সিরাজগঞ্জের বেলকুচির প্রত্যন্ত অঞ্চলের ছেলে আরিফুল ইসলাম। বাবা একজন চা বিক্রেতা।  পাঁচ সদস্যের টানাটানির সংসার তাদের।  এই টানাটানির মধ্যে দিয়ে আরিফুল ইসলাম চলতি বছরে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় নিজের জায়গায় করে নিয়েছেন বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিক্যাল কলেজে।   

মেডিক্যালে চান্স পাওয়ার পরই সুখের বদলে হতাশা দেখা দিলো আরিফের।  কিভাবে ভর্তির টাকা ব্যাবস্থা করবেন তিনি।  আরিফুল ইসলাম মেডিভয়েসকে জানান, চান্স পাওয়ার পর এলাকার এক বড়ভাই তাকে মেডিক্যালে ভর্তি করিয়ে দেন।  এখন পড়াশুনা নিয়মিত খরচ চালানোর বিষয়ে শঙ্কিত সে।

তাকে নিয়ে জাতীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর তার পাশে দাড়িয়েছেন দুজন চিকিৎসক।  একজন রাজধানীর ইব্রাহিম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের (বারডেম) সহকারি অধ্যাপক ডা. সাকলায়েন রাসেলের উদ্যোগে ”ফ্রেন্ডশিপ বাংলাদেশ” এর “বন্ধু এইড” থেকে ইতোমধ্যে তাকে সহযোগিতা করার বিষয়ে আশ্বাস দেয়া হয়েছে। এছাড়া  আরেকজন চিকিৎসক ডা. আবিদ হোসাইন মোল্লাহ তাকে প্রথম প্রফের পাঠ্য সামগ্রী কিনে দেয়ার আশ্বাস দেন।  এছাড়া পড়াশুনার পাশাপাশি তাকে টিউশনির ব্যবস্থা করে দেয়ার বিষয়ে ও আশ্বাস দেন ডা সাকলায়েন রাসেল।

আরিফুল ইসলাম মেডিভয়েস প্রতিবেদককে জানান, তিনি ২০১০ সালে প্রাথমিকে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি, ২০১৩ সালে জেএসসি ও ২০১৬ সালে সোহাগপুর এস কে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ -৫ পান।  পরে উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তি হন ঢাকা কলেজে।  ২০১৮ সালেও তিনি এইচএসসিতে জিপিএ ফাইভ পান সেখান থেকে।

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে আরিফ ২৪৫৭ স্থান দখল করে ভর্তির সুযোগ পান বগুড়ার শহীদ জিয়া মেডিক্যাল কলেজে। ভব্যিষতে তিনি একজন চিকিৎসক হয়ে গ্রামের অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়াতে চান।  পেশাগত জীবনে তিনি নিউরোলজির ওপর উচ্চতর গবেষণার ইচ্ছে আছে আরিফুল ইসলামের।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি