ঢাকা      শনিবার ২৩, ফেব্রুয়ারী ২০১৯ - ১০, ফাল্গুন, ১৪২৫ - হিজরী

ক্যান্সারের ঝুঁকিতে রেডিওলজিস্ট কার্ডিওলজিস্ট টেকনোলজিস্টরা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: এক্স-রে, সিটি স্ক্যান ও কার্ডিয়াক ক্যাথ ল্যাবে কর্মরত চিকিৎসক ও টেকনোলজিস্টদের রেডিয়েশনের ঝুঁকি এড়াতে পরিধান করতে হয় রেডিয়েশন প্রতিরোধক পোশাক, চশমা ও গ্লাভস। এছাড়াও শরীরে কতটা রেডিয়েশন জমা হচ্ছে, তা পরিমাপে ব্যবহারের কথা বিশেষ ধরনের ব্যাজ। কিন্তু এসব সুরক্ষা উপকরণের পর্যাপ্ত ব্যবহার ছাড়াই এক্স-রে, সিটি স্ক্যান ও কার্ডিয়াক ক্যাথ ল্যাবে কাজ করায় ক্যান্সারের ঝুঁকিতে পড়ছেন অনেকে, এমনকি আক্রান্তও হচ্ছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রেডিয়েশনের প্রভাবে ঢামেক হাসপাতালের রেডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক নজরুল ইসলাম ও অধ্যাপক আহমেদ হোসেন ক্যান্সারে ও এক টেকনোলজিস্ট কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এছাড়া লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজের রেডিওলজি বিভাগের আরেক চিকিৎসক। এর বাইরে অনেকে একই সমস্যায় ভুগছেন। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নীতিমালা অনুযায়ী, যে কক্ষে এক্স-রে বা সিটি স্ক্যান করা হয় সেটা রেডিয়েশন প্রটেকশন হতে হবে। কংক্রিটের ১০ ইঞ্চি দেয়াল থাকবে, যার ওপর লেডের প্রটেকশন দেয়ার পর প্লাস্টার করতে হবে। লেডের প্রটেকশন থাকতে হবে দরজায়ও। বিভিন্ন হাসপাতাল ঘুরে ও খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সরকারি হাসপাতালে এসব মানা হলেও বেসরকারি অনেক হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারেই তা মানা হয় না।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের রেডিওলজি ও ইমেজিং বিভাগের অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান বলেন, এক্স-রের কাছাকাছি যারা থাকেন, তাদের ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি থাকে। ক্রনিক রেডিয়েশনের কারণে ক্যান্সার হয়, এটা বিশ্বব্যাপী প্রতিষ্ঠিত। 

ডা. মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের দেশে রেডিয়েশন প্রতিরোধক পোশাক ও অন্যান্য অনুষঙ্গ ব্যবহার না করার কারণে ঝুঁকি বেশি। এছাড়া দেয়ালে কোথাও ছিদ্র আছে কিনা, বারান্দায় রেডিয়েশন আসে কিনা, এক্স-রে এক্সপোজার নেয়ার সময় সার্বক্ষণিক দরজা বন্ধ থাকে কিনা, তা ঠিকমতো দেখা হয় না। এসব কারণে এ ধরনের পেশায় সম্পৃক্তদের মধ্যে ক্যান্সারের ঝুঁকি তৈরি হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, রেডিয়েশন মনিটরিং ব্যবস্থা আণবিক শক্তি কমিশনের আওতাধীন। তাদের উচিত ব্যাজ সরবরাহ ও নিয়মিত তদারকি করা। যত কর্মী তত ব্যাজ না নিলে এক্স-রে মেশিনের নবায়ন না করার প্রথা যদি চালু করা হয়, তাহলেও ঝুঁকি কিছুটা কমবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগে নিয়ম অনুযায়ী আণবিক শক্তি কমিশন রেডিয়েশন ব্যাজ ও টিএলডি ডিভাইস বিভিন্ন হাসপাতালের রেডিওলজি বিভাগে লাগিয়ে দিয়ে যেত। নির্দিষ্ট সময় পর সেগুলো রিড করে তার ভিত্তিতে কেউ অতিরিক্ত রেডিয়েশনের মধ্যে আছে কিনা, ওই বিভাগকে তা জানিয়ে দিত। কিন্তু টিএলডি ও ব্যাজ সরবরাহের খরচ বহনের জটিলতায় প্রায় পাঁচ বছর ধরে সেটি আর নিয়মিত করছে না আণবিক শক্তি কমিশন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

চকবাজারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দুই চিকিৎসকের মৃত্যু

চকবাজারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দুই চিকিৎসকের মৃত্যু

ইনসেটে নিহত ডা. ইমতিয়াজ ইমরোজ ও  মো. আশরাফুল হক। ফাইল ছবি মেডিভয়েস…

মেজর ডা. রবীনকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

মেজর ডা. রবীনকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

মেজর ডা. মেহেদী হাসান রবিন। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ৪৫তম ব্যাচের প্রাক্তন…

১০ এপ্রিলের মধ্যেই ৩৯তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল

১০ এপ্রিলের মধ্যেই ৩৯তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল

মেডিভয়েস রিপোর্ট: আগামী ১০ এপ্রিলের মধ্যেই ৩৯তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা…

নাটোরে চিকিৎসকের নামে মামলার হুমকি ওসির

নাটোরে চিকিৎসকের নামে মামলার হুমকি ওসির

মেডিভয়েস রিপোর্ট: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাটোর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক চিকিৎসকের…

দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় বিএসএমএমইউ চিকিৎসকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় বিএসএমএমইউ চিকিৎসকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলোজী বিভাগের কনসালটেন্ট ডা.…

৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে ৪০ চিকিৎসকের বদলি

৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে ৪০ চিকিৎসকের বদলি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: পার্বত্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় ৪০ চিকিৎসককে মাত্র ৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর